শিরোনাম

প্রকাশিত : ২৩ জানুয়ারী, ২০২২, ০৩:৩৫ রাত
আপডেট : ২৩ জানুয়ারী, ২০২২, ০৩:৩৫ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

ইশরাত জাহান ঊর্মি: এখনকার আন্দোলন করা ছেলেমেয়েগুলো ইউনিক

ইশরাত জাহান ঊর্মি: সাস্ট সবসময় ইউনিক। আমরা যখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ি তখন একটা হলের নাম মুহম্মদ জাফর ইকবাল ‘জাহানারা ইমাম’ এর নামে প্রস্তাব করায় শিবির তা ঠেকাতে মাঠে নামলো। চার দলীয় জোটের দাপট তখন এখন যেমন একদলীয় জোটের। হুমায়ূন আহমেদ ছোট একটা ঘোষণা দিলেন, শহীদ সন্তান হিসেবে এই ঘটনার প্রতিবাদে, হলের নামকরণ করতে তিনি স্ত্রী-সন্তান আর মাকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে অনশনে বসবেন বা বসে থাকবেন। তাঁর সেই যাত্রা সমারোহের যাত্রা হলো। শত শত লোক যোগ দিলো। আমরা সারারাত ট্রেন জার্নি করে সিলেট গেলাম। তারপর মাইক্রোবাসে করে স্পটে যেতে রওয়ানা দেওয়া। সারারাত না ঘুম। গাড়ির দুলুনিতে তন্দ্রামতো আসছে, হঠাৎ জান্তব চিৎকার আর গাড়িতে ঢিল ছোড়া আর ধপাধপ লাত্থিতে আতঙ্ক নিয়ে তন্দ্রা ছুটে গেলো। শিবির কর্মীরা একটা নির্দিষ্ট জায়গায় রাস্তার দু’পাশে দাঁড়িয়ে প্রসেসন করছিলো।হলের নাম জাহানারা ইমাম কি হয়েছিলো? আমার মনে নেই। কিন্তু এই ইউনিক আন্দোলনটা প্রতিবাদটা মনে আছে।

এখনকার আন্দোলন করা ছেলেমেয়েগুলোও ইউনিক। তারা একসঙ্গে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে, যেকোনো ট্যাগ থেকে নিজেদের মুক্ত রাখছে, মাথানত করছে না, করছেই না। আন্দোলনের ফলাফল কি হবে জানি না। মুহম্মদ জাফর ইকবালের কথামতো সরকারের নিয়োগ দেওয়া হুইপিং করতে জানা ‘প্রশাসক’ তথা এই নির্লজ্জ বেহায়া ভিসিকে সরকার নামাবে কিনা জানি না, তাতে এই আন্দোলনকারীরা ছোট হবে না, তারা নৈতিকভাবে অনেক আগেই জিতে গেছে। ফেসবুক থেকে

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়