প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কুষ্টিয়ায় ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় শিশু নিহত

আব্দুম মুনিব, ফয়সাল চৌধুরী: [২] শুক্রবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে চারটার দিকে শহরের লাহিনী বটতলা শাহ পাড়া এলাকায় ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় অনিক (৭) নামের শিশু গুরুতর আহত হয় । এসময়  তাকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সন্ধা সোয়া সাতটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু অনিকের মৃত্যু হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশুটি হাসপাতালে মৃত্যুর ঘটনাটি নিশ্চিত করেন কুষ্টিয়া ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের (আরএমও) আশরাফুল আলম।

[৩] এলাকবাসী জানায়, ড্রাম ট্রাকটি শিশু অনিককের ওপর উঠে যায়। ড্রাম ট্রাকটি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা কালে এলাকাবাসী ট্রাকটি আটক করে চালককে গণধোলাই দেয় এবং ট্রাক ভাংচুর চালায়। পরে এস আই খালিদুর রহমান আশিক, এসআই সাহেব আলী ও এএসআই আসাদ ঘাতক ড্রাম ট্রাক চালক কে আটক করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় পাঠায় এবং ড্রাম ট্রাকটি আটক করে মিলপাড়া পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা শিশু অনিক আশংকাজনক অবস্থায় ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের ৬নং ওয়ার্ডে ভর্তি করে।পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সোয়া সাতটার সময় শিশুটির মৃত্যু হয়।নিহত শিশু অনিক শহরের লাহিনী বটতলা এলাকার আক্কার শাহ এর ছেলে।

[৪] এই বিষয়ে কুষ্টিয়া ২৫০ জেনারেল হাসপাতালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আশরাফুল আলম বলেন, শিশুটিকে গুরুতর অবস্থায় বিকালে হাসপাতালে ভর্তি করে তার পরিবারের লোকজন।ড্রাম ট্রাকটি শিশুটির গায়ের উপরে উঠে যাওয়ার কারনে শিশুটি গুরুতর জখম হয়।শিশুটিকে বাঁচানোর জন্য চিকিৎসক দল আপ্রাণ চেষ্টা করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাতটা বিশ মিনিটের সময় শিশুটির মৃত্যু হয়।

[৫] কুষ্টিয়া মডেল থানার (ওসি) সাব্বিরুল আলম জানান, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ড্রাম ট্রাক ও চালককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটি পরিবারের লোকজন মামলা দেওয়ার জন্য বর্তমানে থানায় আছে।মামলার প্রস্তুতি চলছে। দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ইনশাআল্লাহ।

[৬] প্রসঙ্গত, কুষ্টিয়া শহরজুড়ে প্রতিনিয়ত শত শত ড্রাম ট্রাক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দেদারসে। বেপরোয়া গতি ও অদক্ষতার কারণে বাড়ছে দূর্ঘটনা। গত কয়েকদিন আগে কুষ্টিয়ায়-ঝিনাইদাহ সড়কের কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ভাদালিয়াতে সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকাল ৬টার সময় ড্রাম ট্রাকের চাপায় একসঙ্গে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।কুষ্টিয়া শহরজুড়ে প্রতিনিয়ত শত শত ড্রাম ট্রাক দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দেদারসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ঠুটো জগন্নাথের ভূমিকায় । বেপরোয়া গতি ও খামখেয়ালিপনা অদক্ষতার কারণে ঘটছে দূর্ঘটনা। অনেক সময় হেল্পার চালক হয়ে চালাচ্ছে সড়ক ও মহাসড়কে। নিয়ন্ত্রনহীন এইসব ড্রাম ট্রাক ও অন্যান্য যানবাহন এর কারণে প্রতিনিয়তই কুষ্টিয়া শহরে ও জেলাজুড়ে বেড়ে চলেছে মৃত্যুর মিছিল। গত কয়েকদিনে ড্রাম ট্রাকের চাপায় কুষ্টিয়ায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত