প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সুনামগঞ্জের ছাতকে আমনের বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

নুর উদ্দিন :  [২] প্রতিটি বিল-হাওরে এখন পাকা ধানের ঘ্রাণ। কিষান-কিষানিরা ধান তুলতে ঘরে-বাইরে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এবার এ উপজেলায় আমনের বাম্পার ফলন হয়েছে। স্থানীয় কৃষি বিভাগের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রোপা আমনের চাষাবাদ কম হলেও ফলন ভালো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কৃষকরা।

[৩] আমনের চারা রোপণের শুরুতেই অতিবৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে কৃষকরা কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলেন। পরে ফসলের মাঠ থেকে পানি নেমে গেলে স্বস্তি ফিরে আসে। শেষ মুহূর্তে ধানের ফলন ভালো হওয়ায় কৃষকের চোখ-মুখে হাসির ঝিলিক দেখা গেছে।

[৪] স্থানীয় কৃষি বিভাগের হিসাব অনুযায়ী, উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে রোপা আমন জমিতে চলতি বছরে আমন ধান রোপণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল ১৩ হাজার ৯২ হেক্টর। তবে এবার আমনের চাষাবাদ করা হয় ১২ হাজার ৭৫০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে উফশী জাতের ধান রোপণ করা হয়েছে ১২ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে এবং স্থানীয় জাতের ধান রোপণ করা হয়েছে ১ হাজার ৫৫০ হেক্টর জমিতে। এসব আমনের জমি থেকে ধান উৎপাদন ৩২ হাজার ৫৯৮ টন হবে এমনটাই ধারণা স্থানীয় কৃষি কার্যালয়ের।

[৫] অতিবৃষ্টির কারণে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে বেশি সময় লেগেছে আমনের চারা রোপণে। সরকারিভাবে কৃষি পুনর্বাসন বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে উপজেলার বিভিন্ন এলাকার মোট ৩৬০ কৃষককে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করা হয়। এ ছাড়া সরকারি খরচে বাছাইকৃত ১৪০ কৃষককে ১ বিঘা জমির জন্য উন্নতমানের উফশী জাতের বীজ ও সার বিতরণ করে উপজেলা কৃষি বিভাগ।

[৬] উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা তৌফিক হোসেন খান বলেন, এবার রোপা আমন লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি আমন ধান উৎপাদন হয়েছে। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে রোপা আমন ধান কাটা শেষ হয়ে যাবে। সম্পাদনা: শান্ত মজুমদার

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত