শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ০২:৪৪ দুপুর
আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর, ২০২১, ০২:৪৪ দুপুর

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

জুড়ী-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কের বিকল্প ব্যবস্তঅ না করে কালভার্ট নির্মাণ, দূর্ভোগ চরমে

স্বপন দেব: [২] মৌলভীবাজারের জুড়ী-ফুলতলা-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কের সমাই বাজার এলাকায় বিকল্প সড়ক তৈরী না করেই কালভার্ট নির্মাণের শুরু করায় দুর্ঘটনায় পড়ছে এ সড়কে চলাচলকারি জনগণ, ভারি ও হালকা যানবাহন।

[৩] মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে অল্পের জন্য উল্টে পড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে একটি যাত্রীবাহী বাস।

[৪] স্থানীয়দের অভিযোগ, উক্ত কালভার্ট নির্মাণ কাজের সাব-ঠিকাদারের এধরণের কালভার্ট নির্মাণে তার কোনো পূর্ব অভিজ্ঞতা নেই। ফলে ঝুঁকিতে পড়েছেন স্থানীয় জনসাধারণ ও গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কে চলাচলকারী যানবাহন।

[৫] জানা গেছে, জুড়ী-ফুলতলা-বটুলি শুল্ক স্টেশন সড়কের জরাজীর্ণ ৮টি কালভার্ট নির্মাণের দায়িত্ব পায় ঢাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘ইউনুছ এন্ড ব্রাদার্স’। কিন্তু এ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান থেকে ৮টি কালভার্টের নির্মাণ কাজের সাবলীজ নেন মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমন।

[৬] সম্প্রতি জুড়ী-ফুলতলা সড়কের সমাই বাজারের সামনে বড়ডহর নামক কালভার্টির বিকল্প সড়ক না করেই তা ভেঙ্গে তিনি নির্মাণ কাজ শুরু করেন। এতে স্থানীয় জনসাধারণ ও যানবাহনগুলো মারাত্মক দুর্ভোগ ও দুর্ঘটনা ঝুঁকির সম্মুখিন হয়ে পড়েছে।

[৭] সরেজমিনে দেখা গেছে বিকল্প সড়ক না থাকায় ৪০ সিটের যাত্রীবাহী একটি বাস অল্পের জন্য উল্টে পড়া থেকে রক্ষা পেয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা শামীম আহমদ, উসমান আলী ও ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন স্বপন জানান, জুড়ী-ফুলতলা সড়কটি জেলা সড়ক হওয়ায় এ সড়কে ভারি যানবাহন প্রতিনিয়ত চলাচলের অনুমোদন রয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ পণ্য আমদানী রপ্তানীর ক্ষেত্রেও সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্ত সাব-ঠিকাদার জেলা যুবলীগের সম্পাদক হওয়ায় নিয়ম কানুনের তোয়াক্কা না করে ডাইভার্সন রোড তৈরী ছাড়াই কালভার্ট ভেঙ্গে নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন। এতে দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে সবধরণের যানবাহন চলছে। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এখানে ভাল মানের ডাইভার্সন নির্মাণ না হলে বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশংকা রয়েছে।

[৮] সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী পার্থ সরকার জানান, এ সড়কের ৮টি কালভার্ট নির্মাণের সাব-ঠিকাদার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমন। ডাইভার্সন সড়ক সঠিক না হলে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। তিনি ঠিকাদারকে দ্রুত বিকল্প সড়ক নির্মাণের তাগিদ দিয়েছেন।

[৯] এবিষয়ে মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ রেজাউর রহমান সুমনের মোবাইল ফোনে মঙ্গলবার রাতে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। ফলে বারবার চেষ্টা করে তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সম্পাদনা: হ্যাপি

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়