প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস নিয়ে সিদ্ধান্ত রোববার

নিউজ ডেস্ক: চট্টগ্রাম নগরে গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের জন্য শর্ত সাপেক্ষে অর্ধেক ভাড়া (হাফ পাস) চালু করার চিন্তাভাবনা করছেন পরিবহন মালিকেরা। তবে এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হলেও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। আগামী রোববার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানাবে পরিবহন মালিক সমিতি। প্রথম আলো

পরিবহনমালিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রাম নগরের বিআরটিসি এলাকায় পরিবহনমালিকদের তিনটি সংগঠন বৈঠক করেছে।

মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপ, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপ ও আন্তজেলা বাস মালিক সমিতির মধ্যে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে চট্টগ্রামের গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ পাস চালু নিয়ে আলোচনা হয়। এ ছাড়া মালিকেরাও তাঁদের বিভিন্ন দাবি উপস্থাপন করেন।

মেট্রোপলিটন পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি বেলায়েত হোসেন শুক্রবার রাতে বলেন, শিক্ষার্থীদের হাফ পাস চালুর বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে এই বিষয়ে পরিবহনমালিকদের ইতিবাচক মনোভাব রয়েছে। কিন্তু তার আগে মালিকদের কিছু দাবি রয়েছে। বিশেষ করে গাড়ির বাৎসরিক আয়কর আগের তুলনায় কয়েক গুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। এটি আগের অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে হবে।

এদিকে আগামী রোববার চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে পরিবহনমালিকদের সিদ্ধান্তের কথা জানানো হবে বলে জানান বেলায়েত হোসেন। হাফ পাস চালু হলেও তা তাৎক্ষণিকভাবে বাস্তবায়ন করার সম্ভাবনা কম বলে জানান তিনি। তাঁর মতে, হুট করে হাফ পাস চালু করা যাবে না। এটি চালু করতে হলে মালিকপক্ষের শর্ত যেমন মানতে হবে, তেমনি সময়ও দিতে হবে।

জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পর গত ৭ নভেম্বর থেকে ঢাকাসহ সারা দেশে বাসের ভাড়া ২৬ থেকে ২৭ শতাংশ বাড়ানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৮ নভেম্বর অর্ধেক ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন রাজধানীর স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। এরপর চট্টগ্রামেও আন্দোলনে নামেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে ২৪ নভেম্বর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির চাপায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হন। এর পর থেকে নিরাপদ সড়ক, অর্ধেক ভাড়াসহ বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের টানা আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার রাজধানীতে বাসে অর্ধেক ভাড়ার দাবি মেনে নেওয়ার ঘোষণা দেয় পরিবহন মালিক সমিতি। তবে চট্টগ্রামে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

চট্টগ্রামে নিরাপদ সড়ক ও হাফ পাস চালুর দাবিতে আন্দোলনরত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাহ মোহাম্মদ শিহাব বলেন, হাফ পাস চালুর ক্ষেত্রে কোনো শর্ত মানতে রাজি নন শিক্ষার্থীরা। নিঃশর্তভাবে সারা দেশে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালু করতে হবে। এই দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত