প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জাবি ‘শিক্ষাবৃত্তির’ নাম পরিবর্তন

ওয়াজহাতুল ইসলাম: [২] জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ফলাফলের ভিত্তিতে প্রদত্ত শিক্ষাবৃত্তির নাম পরিবর্তন করা হয়েছে।

[৩] বুধবার (১ ডিসেম্বর) এক অফিস আদেশে জানানো হয়, গত ৬ নভেম্বর ২০২১ তারিখের সিন্ডিকেটের ভার্চুয়াল সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) প্রতি শিক্ষাবর্ষে পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে শতকরা ৫০ ভাগ শিক্ষার্থীকে প্রদত্ত আর্থিক সাহায্যের নাম “বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূরক আর্থিক সাহায্য” এর পরিবর্তে “বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তি” করা হয়েছে।‌‌

[৪] নাম পরিবর্তনের বিষয়ে ছাত্রফ্রন্টের আহবায়ক শোভন রহমান বলেন, আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো শিক্ষাবৃত্তির নাম পরিবর্তনের। সম্পূরক শিক্ষাবৃত্তির পূর্বে যেই নাম ছিলো তা নিঃসন্দেহে আপত্তিকর। শিক্ষাবৃত্তি কোনো সাহায্য নয়। এটি ছাত্র-ছাত্রীদের অধিকার। আমরা আশা করি নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি বৃত্তির পরিমাণও বৃদ্ধি পাবে। কারণ স্বাধীনতার পরে বৃত্তির অর্থের যে পরিমাণ ছিলো তাতে একজন ছাত্র/ছাত্রী নিজের ভরন-পোষণ করে পরিবারের জন্যও কিছু টাকা পাঠাতে পারতো। কিন্তু সময়ের সাথে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেলেও, বৃদ্ধি পায়নি বৃত্তির অর্থের পরিমাণ।

[৫] এছাড়া, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের সভাপতি রাকিবুল রনি বলেন, “দেরিতে হলেও শিক্ষার্থীদের সম্মান দেওয়ার ব্যাপারে বোধোদয় হওয়ায় প্রশাসনের সাধুবাদ প্রাপ্য। পাশাপাশি করোনার কারণে শিক্ষার্থীদের পরিবারের অর্থনৈতিক অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে হলেও সম্পূরক বৃত্তির মাসিক অর্থের পরিমাণ ১০০০ টাকা করা উচিৎ।”

[৬] বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সায়মা আক্তার জানান, দীর্ঘ দিনের দাবির প্রেক্ষিতে শিক্ষাবৃত্তির নাম পরিবর্তন করায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সাধুবাদ জানাই। সেই সাথে আশা করছি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বৃত্তির আর্থিক পরিমাণ বৃদ্ধির বিষয়ে পদক্ষেপ নিবে। কারণ বৃত্তির যে পরিমাণ প্রদান করা হয় তা দ্রব্যমূল্যের তুলনায় খুবই স্বল্প।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত