প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জাবি প্রথম বর্ষ শিক্ষার্থীদের ঠিকানা গণরুম

ওয়াজহাতুল ইসলাম: [২]  দীর্ঘ বিশ মাসের বিরতির পর আবাসিক হলে ওঠার সুযোগও পেয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) শিক্ষার্থীরা করোনা সনদ দেখানো সাপেক্ষে স্ব স্ব আবাসিক হলে উঠতে শুরু করেন।

[৩] সরেজমিনে ঘুরে দেখা হলে, সকাল থেকেই শিক্ষার্থীরা ব্যাগ, ট্রাংক, বেডিং মালপত্র নিয়ে নিজ নিজ হলের সামনে ভিড় জমাতে থাকেন। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে গণরুম না রাখার কথা বলা হলেও শেষ পর্যন্ত গণরুমেই ঠাঁই হয়েছে শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের সিট দিতে ব্যর্থ হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

[৪] বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট কমিটির সভাপতি  অধ্যাপক মোহা. মুজিবুর রহমান আমাদের সময়.কম-কে বলেন, ‘আবাসিক হলগুলোতে সিটের সংকটের ব্যাপারে অবগত আছি। অন্তত ৫০ ভাগ শিক্ষার্থীকে আমরা আবাসনের আওতায় আনার চেষ্টা করেছি৷ কিন্তু ৪৪ ব্যাচের অনেকেই এখনো হলে অবস্থান করায় এই সংকট এড়ানো যায়নি। তবে গণরুমগুলোতেও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে ছাত্রদের রাখা হয়েছে। কিছু গণরুমে খাট দেওয়া হয়েছে।’

[৫] ঠিক কতদিন গণরুমে অবস্থান করতে হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের নতুন হলগুলোর কাজ এ বছরের মধ্যেই শেষ হবে। আশা করছি আগামী দেড় মাসের মধ্যেই আমরা ছাত্রদের গণরুম থেকে আবাসনের ব্যবস্থা করতে পারব।’

[৬] প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের অনেকের সাথে কথা বললে তারা জানান,  আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে এসে এখন গণরুমের মেঝেতে ঘুমাতে হবে এটা আমাদের জন্য খুবই দুঃখজনক। তবুও আমরা খুশি। কারণ করোনার কারণে প্রথম বর্ষের ক্যাম্পাস জীবন থেকে বঞ্চিত হয়েছি। দীর্ঘদিন পর প্রাণের ক্যাম্পাসে ফিরতে পেরে বেশ ভালো লাগছে।

[৭] প্রসঙ্গত, গত বছর করোনাভাইরাসের কারণে মাত্র সাত দিন ক্লাস করার পর ক্যাম্পাস থেকে বিদায় নিতে হয়েছিল প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের। মাঝের পুরো সময়টিতে শিক্ষা কার্যক্রম চলে অনলাইনে। ১১ অক্টোবর জাবির আবাসিক হল খুলে দেওয়া হলেও প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ৩০ নভেম্বর হলে ওঠানোর সিদ্ধান্ত নেন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সম্পাদনা: শান্ত মজুমদার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত