প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিক্ষিকা স্ত্রীকে হাতুড়ি পেটা করে থানায় কলেজ শিক্ষকের আত্মসমর্পণ

নিউজ ডেস্ক: জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে কলেজশিক্ষক তার স্ত্রী স্কুলশিক্ষিকাকে মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন। সোমবার রাতে জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার ৫নং ওয়ার্ডের রামপুরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। যুগান্তর

স্থানীয় লোকজন জানান, দেওয়ানগঞ্জ সানন্দবাড়ী ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক আক্রামুদৌল্লাহ পাহলোয়ান বিপ্লবের স্ত্রী বীর হলকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা লতিফা পারভীন। দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে পারিবারিক অশান্তি বিরাজ করছিল। মাঝে মধ্যেই কলেজশিক্ষক তার স্ত্রীকে মারধর করতেন।

সোমবার রাতে নিজ বাড়িতে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রী মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় রেখে কলেজশিক্ষক আক্রামুদৌল্লাহ পাহলোয়ান বিপ্লব থানায় আত্মসমর্পণ করেন। আহত শিক্ষিকাকে আশপাশের লোকজন ও স্বজনরা উদ্ধার করে দেওয়ানগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিৎসকরা আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে স্বজনরা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি মহব্বত কবির যুগান্তরকে জানান, কলেজশিক্ষক তার স্ত্রীকে মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে থানায় নিজেই আত্মসমর্পণ করেছেন। তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত