প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কালীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীদের ওপর হামলা, প্রচার মাইক ভাংচুর

ফিরোজ আহম্মেদ: [২] কালীগঞ্জে কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়নের স্বতন্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু জাফরের কর্মীদের উপর হামলা ও প্রচার মাইক ভাংচুর চালিয়েছে প্রতিপক্ষেরা। এ ঘটনায় ভ’ক্তভোগী বৃহস্পতিবার কালীগঞ্জ উপজেলা রিটার্নিং অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

[৩] চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু জাফর তার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, তিনি এবার ওই ইউনিয়নের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে আনারস প্রতিকে নির্বাচন করছেন। প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার দুপুরে তার নির্বাচনী প্রচার মাইক এলাকায় বের হলে প্রতিপক্ষ গ্রুপের কর্মী ঘোপপাড়া গ্রামের তুষার ও আলামিন বাধা সৃষ্টি করে। এক পর্ষায়ে তারা মাইক বন্ধ করে হুমকি দেয়। এরপর বিকালে সাড়ে ৪ টার দিকে তার কর্মীগন সাতগাছীয়া গ্রামে ভোট চাইতে গেলে তেতুলবাড়িয়া গ্রামের রোকনের নেতৃত্বে অজ্ঞাত ১০/১৫ জন কর্মী তাদের উপর হামলা চালায়।

[৪] এ সময় আনারস প্রতিকের কর্মীদের মারধর ও পোষ্টার কেড়ে পানিতে ফেলে নষ্ট সহ প্রচার মাইক ভাংচুর করে। চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু জাফর আরো আরো উল্লেখ করেছেন, এ অবস্থায় তার নির্বাচনী এলাকায় প্রচার প্রচারনা চালানো অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তিনি সুষ্ট নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। উল্লেখ্য, আগামী ২৮ নভেম্বর কালীগঞ্জ উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহন অনুষ্টিত হইবে।

[৫] এ ঘটনার অভিযুক্ত রোকন জানায়, মারামারি, মাইক ভাংচুর বা পোষ্টার ছেড়ার মত কোন ঘটনা ঘটেনি। তিনি আনারসের কর্মীদেরকে দেওয়ালে পোষ্টার সাটানো নিষেধ করাতে কিছুটা বাক বিতন্ডা হয়েছিল। তার নামে দেওয়া অভিযোগটি একেবারেই সাজানো ও মিথ্যা।

[৬] এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত রিটানিং অফিসার কালীগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কৌশিক আহম্মেদ জানান, একটি অভিযোগপত্র তিনি হাতে পেয়েছেন। অভিযোগপত্র টি তিনি ইউএনও, নির্বাচন কর্মকর্তা ও থানাতে প্রেরন করবেন। তারা বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে জানান।
কালীগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচাজ মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, কাষ্টভাঙ্গা ইউনিয়নের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোন ঘটনার অভিযোগ তিনি হাতে পাননি। পেলে ব্যাবস্থা নিবেন বলে জানান তিনি।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত