প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বে ধূমপানসহ তামাক সেবনকারীর সংখ্যা কমছে: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

নিউজ ডেস্ক: বিশ্বব্যাপী ধূমপানসহ নানা উপায়ে তামাক সেবনকারীর সংখ্যা ২০১৫ সালের চেয়ে ২ কোটি কমে এসেছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও)। তামাকের ব্যবহার নিয়ে বুধবার (১৭নভেম্বর) সংস্থাটির চতুর্থ প্রতিবেদনে এমনটিই জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিশ্বের ১৩০ কোটি মানুষ এখন তামাকজাত পণ্য ব্যবহার করেন। ২০১৫ সালে এ সংখ্যা ছিল ১৩২ কোটি। ভবিষ্যতে তামাক ব্যবহারকারীর সংখ্যা আরও কমে ২০২৫ সাল নাগাদ ১২৭ কোটিতে নেমে আসবে বলেও প্রতিবেদনে আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়, ২০১০ থেকে ২০২৫ সালের মধ্যে তামাকের ব্যবহার ৩০ শতাংশ কমিয়ে আনার বিষয়ে ৬০টি দেশ স্বেচ্ছায় এগিয়ে এসেছে। দুই বছর আগে এ তালিকায় ছিল ৩২টি দেশ।

তামাক নিয়ন্ত্রণে কার্যকর এবং সমন্বিত ডব্লিওএইচও ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোব্যাকো কন্ট্রোল (ডব্লিউএইচও এফসিটিসি) নীতির মাধ্যমে লাখো মানুষের জীবন রক্ষা করা গেছে জানিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, তামাকজনিত মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এটা বড় অর্জন।

সংস্থার মহাপরিচালক তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস বলেন, ‘প্রতি বছর আরও কম সংখ্যক মানুষকে তামাক ব্যবহার করতে দেখাটা খুবই উৎসাহব্যঞ্জক এবং বৈশ্বিক লক্ষ্য অর্জনে আরও দেশ এই কাতারে যোগ দিচ্ছে।’

দেশগুলোর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আমাদের আরও অনেক দূর যেতে হবে এবং তামাক কোম্পানিগুলোও তাদের বিপজ্জনক পণ্য ফেরি করে বিশাল মুনাফা ধরে রাখার যাবতীয় কৌশল ব্যবহার করবে। তামাক সেবন ছেড়ে দেওয়ার কাজে সহায়তা করে মানুষের জীবন রক্ষায় নানা ধরনের কার্যকর পন্থা অবলম্বনের জন্য আমরা সকল দেশকে উৎসাহ দিচ্ছি।’

ডব্লিওএইচওর প্রতিবেদনে ধূমপানে ব্যবহৃত তামাক-সিগারেট, পাইপ, সিগার, ওয়াটারপাইপ, চুরুট, বিড়ি, তামাকজাত পণ্য অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে ইলেক্ট্রনিক সিগারেটের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়নি বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, ২০২০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যার ২২ দশমিক ৩ শতাংশ তামাকজাতপণ্য ব্যবহার করেছে। এরমধ্যে ৩৬ দশমিক ৭ শতাংশ পুরুষ এবং ৭ দশমিক ৮ শতাংশ নারী। বেশিরভাগ দেশেই কম বয়সীদের কাছে বিক্রি নিষিদ্ধ হলেও বিশ্বের প্রায় ৩ কোটি ৮০ লাখ শিশু তামাকজাত পণ্য ব্যবহার করে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়। এসব শিশুর বয়স ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সের মধ্যে।

২০২০ সালে তামাক সেবনকারী নারীর সংখ্যা ছিল ২৩ কোটি ১০ লাখ। এর মধ্যে ৫৫ থেকে ৬৪ বছর বয়সী নারীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, তামাক ব্যবহারের কারণে প্রতিবছর বিশ্বে ৮০ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। তাদের মধ্যে প্রায় ১২ লাখ মানুষ সরাসরি ধূমপান না করেও ধূমপায়ীদের সংস্পর্শে থাকার কারণে মারা যাচ্ছেন।

ইত্তেফাক

সর্বাধিক পঠিত