প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দুঃসময়ে পাশে থাকা রিকশাচালককে সব সম্পত্তি দিলেন বৃদ্ধা

মাজহারুল ইসলাম: [২] ভারতের উড়িষ্যার কটকের বাসিন্দা মিনতি পট্টনায়েক। ২০২০ সালে স্বামী-সন্তান হারিয়ে একা হয়ে যাওয়া বৃদ্ধার পাশে দাঁড়াননি কোনো আত্মীয়। তবে বুদ্ধ শ্যামল নামের এক রিকশাচালক ও তার পরিবার এই সময় তার ছায়াসঙ্গী হয়ে ছিলেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া এবং টাইমস নাউ এই তথ্য জানিয়েছে। ঢাকা পোস্ট

[৩] ওই শ্যামলের রিকশায় চেপে মিনতি ও তার স্বামী যাতায়াত করতেন। সেই থেকেই পরিচয়। তবে সেই সামান্য পরিচয় কবে আত্মীয়তায় বদলেছে কেউই টের পাননি। নিজের পরিবারের সদস্যের মতো মিনতিকে আগলে রেখেছিলেন সেই রিকশাচালক ও তার পরিবারের লোকজন।

[৪] সেই রিকশাচালকের নিঃস্বার্থ সেবায় আপ্লুত হন মিনতি। দুঃসময়ে আত্মীয়-স্বজনকে পাশে না পাওয়া বৃদ্ধা মিনতি নিজের বাড়ি, স্বর্ণালঙ্কারসহ প্রায় এক কোটি টাকার সম্পত্তি লিখে দিলেন রিকশাচালক বুদ্ধ শ্যামলের নামে।

[৫] মিনতি বলেছেন, স্বামী ও মেয়েকে হারানোর পর সম্পত্তির কোনো মূল্য নেই। দুঃসময়ে আমি মানুষ চিনেছি। কাছের মানুষরা আমার জন্য যা করেনি, বুদ্ধ ও তার পরিবার করেছে। সজ্ঞানে তাকে সম্পত্তি লিখে দিলাম।

[৬] তিনি আরও বলেন, আমার খারাপ সময়ে দিন-রাত এক করে বুদ্ধ ও তার পরিবার পাশে ছিল। তাদের সাধ্যের বাইরে গিয়েও আমার জন্য অনেক কিছু করেছে। তাই আমার এই সম্পত্তি ওদেরই প্রাপ্য।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত