প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ঔপনিবেশিক আমলের শিল্প কারখানায় বয়লার আইন বদলে সংসদে বিল উত্থাপিত

মনিরুল ইসলাম: [২] বৃটিশ শাসন আমলের প্রণীত শিল্প কারখানার বয়লার সংক্রান্ত আইন বাতিল করে নতুন প্রণয়ণে জাতীয় সংসদে ‘বয়লার বিল-২০২১’ উত্থাপন করা হয়েছে। বিলে শিল্প কারখানায় বয়লার দুর্ঘটনার ঝুঁকি কমাতে নতুন এই আইন করা হচ্ছে বলে বিলে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রস্তাবিত আইনে বয়লারের গা থেকে নিবন্ধন নম্বর অপসারণ, পরিবর্তন, বিকৃত বা অদৃশ্য করে অন্য বয়লার ব্যবহার করলে জেল-জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

[৩] রোববার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে বিলটি উত্থাপন করেন শিল্পমন্ত্রী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। পরে বিলটি অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটিকে ৩০ দিনের মধ্যে সংসদে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। তবে বিলটি উত্থাপন নিয়ে আপত্তি জানান জাতীয় পার্টির ফখরে ইমাম।

[৪] বিল বলা হয়েছে, সনদ ছাড়া বয়লার পরিচালনা করলে সর্বোচ্চ দুই বছরের জেল বা দুই লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবে। বিদ্যমান আইনে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের বিধান রয়েছে। নিয়মের বাইরে কেউ বয়লার তৈরি বা আমদানি করলে দুই বছরের জেল ও দুই লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। নিয়মের বাইর গিয়ে বয়লার ব্যবহার করলে বা কাউকে ব্যবহারের অনুমতি দিলেও সর্বোচ্চ দ্ইু বছরের জেল এবং দুই লাখ টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে।

[৫] বিলে বয়লারের গায়ে স্থায়ীভাবে চিহ্নিত বা সংযোজিত নিবন্ধন নম্বর অপসারণ, পরিবর্তন, বিকৃত ও অদৃশ্য করে অন্য কোনো বয়লার ব্যবহার করলে দুই বছরের কারাদণ্ড, দুই লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। বলা হয়েছে, দুর্ঘটনার জন্য বয়লার ব্যবহারকারী, পরিচালনাকারী বা দায়িত্বপ্রাপ্ত কোনো ব্যক্তি ওই দুর্ঘটনার দায়ী হবেন। দুর্ঘটনা রোধে কেউ যুক্তিসঙ্গত ব্যবস্থা নিয়েছেন- এমন প্রমাণ করতে পারলে তিনি দায়ী হবেন না। দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণের দায়ী ব্যক্তির কাছ থেকে আদায় করা হবে বলে খসড়া আইনে বলা হয়েছে।

[৬] আইনের বাস্তবায়ন নিশ্চিত করার জন্য প্রধান বয়লার পরিদর্শক এবং বয়লার পরিদর্শক থাকবেন। বয়লার বোর্ড থাকবে, সেখানে একজন চেয়ারম্যান এবং সাত জন সদস্য থাকবেন। সদস্যদের মেয়াদ হবে তিন বছর।

সর্বাধিক পঠিত