প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য হত্যার ঘটনায় রাস্তা অবরোধ, অভিযুক্ত ব্যক্তির বাড়ি-ঘরে আগুন

আনোয়ার হোসেন: [২] গাইবান্ধার সদর উপজেলায় নবনির্বাচিত এক ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় এলাকাজুড়ে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়েছে। হত্যাকারীকে আটকের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে রেখেছে বিক্ষুব্ধ জনতা ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

[৩] শনিবার (১৩ নভেম্বর) সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত গাইবান্ধা-সুন্দরগগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের লক্ষীপুর বাজার এলাকায় এক কিলোমিটার পথজুড়ে এ অবরোধ করে রাখে বিক্ষিপ্তত্ব জনতা। রাস্তা অবরোধ করার কারনে সড়কের দুই পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের শান্ত করার করা চেষ্টা করছেন।

[৪] ওই এলাকায় সাধারন জনগনসহ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চাল লক্ষ্য করা গেছে। এ মৃত্যুকে তারা কোন ক্রমেই মেনে নিতে চাচ্ছেন না।

[৫] কয়েকজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তারা বলেন, স্যারের হত্যারকারী ফাঁসি না হওয়া পর্যন্ত আমরা এখান থেকে সড়ে যাবো না। স্যারকে কেন হত্যা করা হলো! সেই হত্যাকারী বিচার দ্রুত করতে হবে।

[৬] ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সদর থানার ওসি মো. মাসুদ রানা বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। স্থানীয়দের শান্ত করাসহ চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে।’

[৭] উল্লেখ্য, শুক্রবার (১২ নভেম্বর) দিবাগত রাত এগারটার দিকে লক্ষ্মীপুর বাজার থেকে রুহুল আমিন নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে মোটরসাইকেলে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয় রউফ। পথে ব্রিজের কাজ চলায় মোটরসাইকেল থেকে নেমে হেঁটে ওই স্থান পার হওয়ার সময় অতর্কিতভাবে আরিফ নামে এক যুবক রউফের মাথায় লোহার রড দিয়ে এলোপাথাড়ি আঘাত করে পালিয়ে যায়। সেখান থেকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

[৮] এছাড়া এ ঘটনার জেরে শুক্রবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে লক্ষীপুর ইউনিয়নের মাগুরের কুটি গ্রামের অভিযুক্ত আরিফ মিয়ার বাড়ি-ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। আগুনে দুটি ঘর ও বেশ কিছু আসবাব পুড়ে যায়।

[৯] নিহত আব্দুর রউফ লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর মাগুরাকুটি গ্রামের মৃত ফজলুল হকের ছেলে। তিনি লক্ষ্মীপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহকারি শিক্ষক। সদ্য অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি এক নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।

সর্বাধিক পঠিত