প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রফি হক : একজন শিল্পীর যন্ত্রণা, একজন শিল্পীর লড়াই-সংগ্রাম

রফি হক : বড় রকমের অসুস্থতার পর আমার বিষণতা, অবসাদগ্রস্থতা কাটিয়ে ওঠার আপ্রাণ চেষ্টা করে চলেছি। ‘অবসাদ’ বা ‘বিষণœতা’ বলতে আমরা যা বুঝি বা জানি আমার বেলায় বিষয়টি তা নয়। আমি বলতে চেয়েছি আমার ছবি আঁকার বা চিত্র রচনার জন্য পরিস্থিতি এখনো সুখদায়ক নয়। মনোযোগ দিয়ে পড়াশোনা করার বা লেখার জন্য এখনো নিজেকে তৈরি করতে পারিনি। আমি সেটাই বলতে চেয়েছি। এই বিষয়গুলো একজন সৃষ্টিকাজের মানুষের জন্য খুব কষ্টের ও বেদনার। যান্ত্রণাদায়কও। আমি ভেবেছি, কিছুদিনের জন্য দেশের ভেতরে কিংবা বাইরে থেকে ঘুরে আসতে পারি। তাতে কি কোনো লাভ হবে? আমার শিল্পকাজ কি এগিয়ে যাবে? হাসপাতালে দায়িত্বপ্রাপ্ত ডাক্তার আমাকে বলেছিলেন, অন্তত তিনমাস কোথাও যাবেন না। দুই ঘণ্টার ওপর শ্রম দেবেন না। এখন কিছুদিন নিজের ওপর নজর দিন। নিজের ওপর হাত-পা বেঁধে নজর দেওয়া যায়? আবার একই জায়গায় থেকে বিরক্ত হচ্ছি, ক্রোধ উৎপন্ন হচ্ছে মনের ভেতর। নিজের জগৎটা যেনবা হারিয়ে ফেলেছি। প্রিয় বই, রং, ক্যানভাস, ব্রাশ— ও গুলোর সঙ্গে অন্তরঙ্গতা কমে এসেছে। ওদের ঘ্রাণ আর পাই না !

বিঠোভেন অন্ধ এবং কালা ছিলেন, বিচ্ছিন্নও ছিলেন, কিন্তু তাঁর সৃষ্টিকাজগুলো সুগন্ধের মতো মর্মস্পর্শী, কেননা তিনি নিজের জগতে বাস করতেন। মনে পড়লো পিসারোর কথা, পয়েন্টালিজমের পিসারো তাঁর ইচ্ছা ছিলো এমন একটা সৃষ্টিশীল দল তৈরি করা, যারা নিজের ধারায় কাজ করবে। কিন্তু সে নিজেই হারিয়ে ফেললো তাঁর শিল্প-চিন্তা। চিরকাল অনুসরণ করে গেলো কুর্বে আর স্যুরকে। বহু টাকা উপার্জন করলো বিন্দু বিন্দু রং বিশ্লেষণ চিন্তা দিয়ে! আমি এখন আর কাউকে অনুসরণ করতে চাই না। নিজেকেই অনুসরণ করতে চাই। শিল্প বিষয়কেন্দ্রিক চিন্তা, যার মধ্যে আমি বাস করে যাচ্ছি বহুকাল ধরে। নিশ্চয়ই কোনো উজ্জ্বল উপায় খুঁজে পাবো। আমি জানি আমি একজন শিল্পী, কেননা আমি অজস্র যন্ত্রণায় বিদ্ধ হয়েছি। আমি শেষ পযন্ত লড়াই করে যেতে চাই। Rafi Haque-র ফেসবুক ওয়ালে লেখাটি পড়ুন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত