প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নওগাঁয় চলছে না গণপরিবহণ, যাত্রীদের ক্ষোভ

সবুজ হোসেন, নওগাঁ প্রতিনিধি : [২] হঠ্যাৎ করে ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় ভাড়া সমন্বয়ের দাবিতে সাড়া দেশের ন্যায় নওগাঁতেও বন্ধ রয়েছে গণপরিবহন। এতে করে বিপাকে পড়েছে নওগাঁ থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গমনকারী যাত্রীরা। অন্যদিকে কখন থেকে চলবে গণপরিবহণ তা জানতে পারেনি স্থানীয় পরিবহণ মালিক সমিতি।

[৩] সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শহরের ঢাকা বাসস্ট্যান্ডে সকাল থেকেই সাড়িবন্ধভাবে রাখা হয়েছে বাসগুলো। কোন বাসই অভ্যন্তরিন ও দূর পাল্লার বাস নওগাঁ থেকে ছেড়ে যাইনি। অনেক বাস কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের ভীড় করতে দেখা গেছে । বাস না চলায় হঠ্যাৎ করে এমন ধর্মঘটের কারনে অনেক যাত্রীরা পড়েছেন চরম বেকায়দায় আবার অনেক চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

[৪] শ্যামলী কাউন্টারের সামনে দাঁড়িয়ে আসেন শ্যামল কুমার নামের এক যাত্রী তার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, সকাল সাড়ে ৯টায় এসেছি বদলগাছী উপজেলা থেকে ঢাকা যাবো। দুই ঘন্টা ধরে ১০-১২টি কাউন্টারে ঘুরলাম কোন বাস ঢাকা যাবেনা। একটি বেসরকারি প্রতিষ্টানে জব করি। কালকে ( শনিবার ) অফিসের একটি জরুরি কাজ আছে। আজ ঢাকা না যেতে পারলে খুব বিপদে পড়ে যাবো। কিন্তু এসে দেখি সব বাস চলাচল বন্ধ। ধর্মঘট চলতে তেলের দাম বাড়ার কারনে। হঠ্যাৎ কেন তেলের দাম বাড়ানো হলো, আবার কেনইবা হঠ্যাৎ ধর্মঘট শুরু হলো। মাঝখানে বিপদে পড়ছি আমরা সাধারণ জনগন।

[৫] শাহ ফতেহ আলী কাউন্টারে বসে আছেন বাদল হোসেন নামের এক ঢাকাগামী যাত্রী। এসময় তিনি বলেন, হঠ্যাৎ করে কেন তেলের দাম বাড়ানো হলো বুঝলাম না। আর পরিবহণ মালিকরা তেলের দাম বৃদ্ধির কারনে ধর্মঘট করছে। বিপাকে পড়ছে কে,আমাদের মত সাধারণ মানুষ। জরুরি কাজে ঢাকা যাবো কিন্তু এসে দেখি বাস চলাচল বন্ধ। এমনটা হবে আগে জানতাম না। সরকারের উচিত এমন দূর্ভোগ এর সমাধান করা।

[৬] মহানিফ কাউন্টারে ভিতর থেকে বের হয়ে বাহিরে দাঁড়িয়ে আছেন রুনু রানী ঢাকার একটি বেসরকারি ফার্মে চাকুরি করেন ২দিনের ছুটিতে এসেছিলেন নওগাঁয় গ্রামের বাড়িতে কিন্তু হঠ্যাৎ করে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় পড়েছেন চরম বিপাকে। রুনু বলেন, যত বিপদ তো সাধারণ জনগনের। আজ ঢাকা না যেতে পারলে খুব সমস্যায় পড়ে যাবো। আসলে সরকার আর গণপরিবহন মালিকদের সমন্বয় এর চরম অভাব। যার ফল ভোগ করছি আমরা। দ্রুত এ সমস্যার সমধান করার দাবি জানাচ্ছি।

[৭] একতা পরিবহনের ম্যানেজার আব্দুল মালেক বরেন, কখন থেকে বাস চলাচল স্বাভাবিক হবে সঠিকভাবে বলতে পারছিনা। এটা মালিক সমতির বিষয়। অনেক যাত্রীরা এসে ফিরে যাচ্ছেন। তাদের কে বলতেও পারছিনা কখন বাস চলবে।

শ্যামলী পরিবহনের টিকিট মাষ্টার মামুন হোসেন বলেন, সকাল থেকে কোন বাস চলছেনা। যাত্রীরা এসে ফিরে যাচ্ছেন। অনেক যাত্রীর ২-৩দিন আগে টিকিট কেটে রাখছিল তারাও পড়েছেন বিপদে। অনেক যাত্রী এসে চরম ক্ষোভও প্রকাশ করছেন। তবে কখন থেকে বাস চলবে এ ব্যাপারে সঠিকভাবে বলতে পারছিনা।

[৮] জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদাক মতিউজ্জামান মতি বলেন, এমন সিন্ধান্ত শুধু আমাদের জেলায় নয় এটা কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক জেলার অভ্যন্তরিন এবং দুরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে আশা করছি দ্রুত এ সমস্যার একটি সমাধান হবে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত