প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রহিম আউট, বাংলাদেশের দরকার ৪০ বলে ৫৩, হাতে ৬ উইকেট

রাহুল রাজ: [২] ১৪৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইনিংসের শুরু করেন সাকিব আল হাসান ও নাঈম শেখ। দলীয় ২১ রান তুলে সাকিব ৯ রানে হোল্ডারের শিকারে পরিণত হয়।

[৩] এর পরেই তার দেখানো পথে হাটেন নাঈম শেখ। হোল্ডারে বলে নিজের ১৭ রানে সরাসরি বোল্ড হয়ে বাংলাদেশকে চাপে ফেলে দেন। সেই চাপ কাটিয়ে ভালই ছুটছিলো সৌম্য ও লিটন। এই দুই ব্যাটসম্যান গড়ে তোলেন ৩১ রানের জুটি। নিজের ১৭ রানে গেইলের হাতে ধরা পড়লে এই জুটির অবসান হয়।

[৪] ১৩.২ ওভার শেষে বাংলাদেশ ৪ উইকেটে ৯০ রান। লিটন ৩২ ও রিয়াদ ০ রানে অপরাজিত আছেন।

[১] সৌম্য আউট, বাংলাদেশের দরকার ৫৫ বলে ৭৯

[২] ১৪৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইনিংসের শুরু করেন সাকিব আল হাসান ও নাঈম শেখ। দলীয় ২১ রান তুলে সাকিব ৯ রানে হোল্ডারের শিকারে পরিণত হয়। এর পরেই তার দেখানো পথে হাটেন নাঈম শেখ।

[৩] হোল্ডারে বলে নিজের ১৭ রানে সরাসরি বোল্ড হয়ে বাংলাদেশকে চাপে ফেলে দেন। সেই চাপ কাটিয়ে ভালই ছুটছিলো সৌম্য ও লিটন। এই দুই ব্যাটসম্যান গড়ে তোলেন ৩১ রানের জুটি।

[৪] নিজের ১৭ রানে গেইলের হাতে ধরা পড়লে এই জুটির অবসান হয়। ১১ ওভার শেষে বাংলাদেশ ৩ উইকেটে ৬৫ রান। লিটন ২১ ও রহিম ০ রানে অপরাজিত আছেন।

[১] সাকিব ও নাঈম সাজ ঘরে, চাপে বাংলাদেশ

[২] ১৪৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইনিংসের শুরু করেন সাকিব আল হাসান ও নাঈম শেখ। দলীয় ২১ রান তুলে সাকিব ৯ রানে হোল্ডারের শিকারে পরিণত হয়। এর পরেই তার দেখানো পথে হাটেন নাঈম শেখ। হোল্ডারে বলে নিজের ১৭ রানে সরাসরি বোল্ড হয়ে বাংলাদেশকে চাপে ফেলে দেন।

[৩] ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশ ২ উইকেটে ২৯ রান। লিটন ২ সৌম্য ০ রানে অপরাজিত আছেন।

[১] বাংলাদেশের টাইট বোলিংয়ে ১৪২ রানে আটকে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

[২] টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিধান্ত নেন বাংলাদেশের অধিনায়ক রিয়াদ। শুরু থেকেই বাংলাদেশের বোলারেরা চেপে ধরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটসম্যানদের। নিকোলাস পুরানের ৪০ ও রোস্টন চেজ ৩৯ রান ছাড়া আর কেউ টাইগার বোলারদের সামনে জ্বলে উঠতে পারেননি। ২০ ওভার শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেট হারিয়ে স্কোর বোর্ডে সংগ্রহ করে ১৪২ রান।

[৩] তিন পেসার নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। পেসার তাসকিন আহমেদকে ফিরিয়ে আনা হয়।

[৪] উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান কাজী নুরুল হাসান সোহান পেটে ব্যথা থাকায় খেলতে পারছেন না। তাকে আজ হোটেলে রেখে মাঠে এসেছে বাংলাদেশ। তার পরিবর্তে সুযোগ পেয়েছেন সৌম্য সরকার। প্রথম ম্যাচে অলরাউন্ডার বিবেচনায় সৌম্যকে মাঠে নামিয়েছিল বাংলাদেশ।

[৫] শারজায় আজ সীমানা খুবই ছোট। এক পাশে ৬১ মিটার। অন্যপাশে ৬৯ মিটার। এখানে ছক্কা হবে হরহামেশা।

[৬] বাংলাদেশের পক্ষে মেহেদী, মোস্তাফিজুর ও শরিফুল ইসলাম ২টি করে উইকেট তুলতে সক্ষম হয়।

[৭] বাংলাদেশ একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম, লিটন দাস (উইকেটকিপার), সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান, শরিফুল ইসলাম, তাসকিন আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমান। সম্পাদনা: মিনহাজুল আবেদীন।

সর্বাধিক পঠিত