প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সিরাজগঞ্জে অনুষ্ঠিত হয়েছে গ্রাম বাংলার ঐহিত্যবাহী লাঠি খেলা

সোহাগ হাসান: [২] প্রতি বছরের ন্যায় এবারও স্থানীয় লাঠিয়ালদের আয়োজনে সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার চক কোবদাসপাড়া মহল্লায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

[৩] এলাঠি খেলা দেখে মহল্লাবাসীদের মাঝে ছিল ব্যাপক উৎসবের আমেজ। কিছুটা সময়ের জন্য প্রাচীন গ্রাম বাংলার আবহে ফিরে যেতে পেরে উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠেন স্থানীয়রা।

[৪] রবিবার সকাল ৯টায় সিরাজগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড মোস্তফা মোড় এলাকায় ঐতিহ্যবাহী এই প্রাচীন খেলা অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী এই লাঠি খেলা দেখতে আসেন শিশু, কিশোর, কিশোরী, বৃদ্ধসহ নানা বয়সের শতশত মানুষ।

[৫] গ্রামীন এ ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাকে টিকিয়ে রাখতে দরকার প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতা এমনটাই মনে করেন স্থানীয় দর্শনার্থীরা।

[৬] ঢাক, ঢোল আর কাঁসার ঘন্টার শব্দে চারপাশ উৎসব মুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। বাদ্যের তালে নেচে নেচে লাঠি খেলে অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করে লাঠিয়ালরা। তারপরই চলে লাঠির কসরত। প্রতিপক্ষের লাঠির আঘাত থেকে নিজেকে রক্ষা ও তাকে আঘাত করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন লাঠিয়ালরা। এসব দৃশ্য দেখে আগত দর্শকরাও করতালির মাধ্যমে উৎসাহ যোগায় খেলোয়াড়দের। হারিয়ে যাওয়া এই ঐতিহ্য বাঁচিয়ে রাখতে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার মাধ্যমে নিয়মিত এই ধরনের আয়োজন করার দাবি করেন দর্শকরা।

[৭] লাঠি খেলা দেখতে আসা শিক্ষার্থী সাকলাইন শিহাব, মুন্না, তাবাসসুমসহ অনেকেই বলেন, লাঠি খেলা দেখে মন ভরে গেছে, গ্রামীন এ ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাকে টিকিয়ে রাখতে নিয়মিত আয়োজন করে টিকে রাখবে আয়োজকরা।

[৮] আয়োজক লাঠিয়াল দেরাজ শেখ বলেন, ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলাকে টিকিয়ে রাখতে আমরা প্রতিবছর এই খেলা আয়োজন করে থাকি। বিনোদন ও আনন্দ দেই। সরকারী সহযোগিতা পেলে নিয়মিত আয়োজন করা হবে।

[৯] লাঠি খেলায় অংশ গ্রহন করেন, লাঠিয়াল বাবলু শেখ, হাফিজুল ইসলাম, আকতার খলিফা, মতি কবিরাজ, আশরাফ, সবুজ, রাকিব, সুজনসহ আরো অনেকে। সকাল থেকে শুরু হয়েছে ওয়ার্ডের বিভিন্ন মহল্লা রাত পযর্ন্ত চলবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত