প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাবার শেষ ইচ্ছে ছিলো আমি যেনো রাজনীতিবিদ না হই: রুমিন ফারহানা

শিমুল মাহমুদ: [২] বাবা অলি আহাদের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, রাজনীতিতে অলি আহাদকে মূল্যায়ন করার যোগ্যতা আমার নাই। আমি ৯০ দর্শকের সন্তান। আমি সেই রাজনীতি দেখে বড় হয়েছি; যে রাজনীতিতে সফল হিসেবে ধরা হয়, যাদের অগাদ টাকা আছে। যার টাকা দিয়ে লোক আনবার, লোক কিনবার ক্ষমতা আছে। যার বিশাল বড় বাংলো আছে, যার প্রাডো গাড়ি আছে। তিনি সেই বড় রাজনীতিবিদ। এ সংজ্ঞাতে দেখে আমি বড় হয়েছি। সুতরাং, একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে উনাকে বুঝবার; উনাকে ধারন করবার, উনাকে লালন করবার সে যোগ্যতা আমার নাই।

[৩] তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশে ৭৩ এর নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে গাভী মার্কায় জয় লাভ করেছিলেন আমারা। বেসরকারিভাবে বিজয়ী প্রার্থী হিসেবে তার নামও ঘোষণা করা হয়। পরের দিন সকালে বাবার কাছে ফোন আসে, ওপাশ থেকে একজন বলে, কিরে অলি আহাদ জিতলি না আমাকে ছাড়া। পরে সেখানে তাহের উদ্দিন ঠাকুরকে সরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। যতোদিন তিনি বেচেঁ ছিলেন, এই তীব্র ব্যাথা নিয়ে তিনি বেচেঁ ছিলেন। তিনি আমাকে এ কথাটি প্রায় বলতেন আমাকে জিততে দিলো না।

[৪] আমার বাবা যিনি তার সারাটা জীবন রাজনীতি করে কাটিয়েছেন। তার সর্বশেষ ইচ্ছা ছিলো আমি যেনো কেনোভাবেই রাজনীতিতে না আসি। এমনকি আমি তার জীবদশায় রাজনীতিও করি নাই। কিন্তু রক্ত তো কথা বলে, না। তাই জন্ম থেকে আমার একটায় ইচ্ছা সফল রাজনীতিবিদ হওয়া। জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ হওয়া এবং সে কারণে বিজ্ঞানের ছাত্র হওয়া সত্বেও বাবাকে বলেছি আমি ব্যারিস্টারি পড়তে যাচ্ছি। তিনি সেদিন কষ্ট পেয়েছিলেন। উনার চোখে আমি বেদনা দেখেছিলাম।

[৫] শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে প্রয়াত রাজনীতিক অলি আহাদের নবম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

[৬] অলি আহাদকে আপাদমস্তক একজন গণতান্ত্রিক নেতা হিসেবে অভিহিত করে তার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

[৭] তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের ভিত্তি রচনার জন্য যে কয়জন মহান ব্যক্তিত্ব, রাজনীতিক চিন্তাবিদ সারা জীবন অবাদন রেখেছেন অলি আহাদ তাদের মধ্যে একজন।

[৮] অলি আহাদের সাহেবের মতো মানুষকে এখন খুঁজে পাওয়া বাংলাদেশে শুধু নয়,সারা পৃথিবী জুড়েই বিরল। সারাটা জীবন তিনি তার নীতি, আর্দশ এবং তার সত্যতায় কোনো আপোষ করেননি।

[৯] মাওলানা ভাষানীর মতোই তার দল ক্ষমতায় গিয়েছে কিন্তু তিনি ক্ষমতায় যাননি। তার দল ক্ষমতায় থাকা সত্বেও দলের সমালোচনা করেছেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত