প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কানাডায় ১৮ বছরের মধ্যে মুদ্রাস্ফীতি সর্বোচ্চ

খালিদ আহমেদ: [২] এছাড়া চলতি বছরের আগস্টে দেশটিতে বার্ষিক মুদ্রাস্ফীতির হার বেড়ে হয়েছে ৪.৪ শতাংশ, এর আগে যা ছিল ৪.১ শতাংশ। ২০০৩ সালের পর যা দেশটিতে সর্বোচ্চ। বিবিসি

[৩] কানাডায় পরিবহণ, আবাসন এবং খাবারের খরচ বেড়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকারি পরিসংখ্যান। এছাড়া সুদের হার বাড়াতে হবে কিনা তা নির্ধারণের জন্যেও আগামী সপ্তাহে বৈঠকে বসছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

[৪] অন্যান্য অনেক দেশের মতোই করোনাভাইরাসের ধাক্কা লেগেছে কানাডাতেও। দেশটিতে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির কারণে মুদ্রাস্ফীতিও দেখা গেছে। লকডাউন খোলার পর থেকেই মূলত দেশটিতে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

[৫] ভোক্তাদের বাড়তে থাকা চাহিদা, বিশ্বব্যাপী চেইন সাপ্লাই ইস্যু, পণ্যের ঘাটতি এবং তেলের মূল্যবৃদ্ধি এসবের ফলে ক্রমেই দেশটিতে জীবনযাত্রার ব্যয় বেড়েই চলেছে।

[৬] পরিসংখ্যানে দেখা যায়, জ্বালানী তেলের মূল্য সবচেয়ে বেশি বেড়েছে গত মাসে। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসের চেয়ে এক বছরে পাম্পে জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে ৩২.৮ শতাংশ।

[৭] গত বছরে যেখানে খাদ্যের দাম বেড়েছিল ৩.৯ শতাংশ, সেখানে চলতি বছরে এই হার ৯.৫ শতাংশ। এছাড়া আবাসন খাতে ৪.৮ শতাংশ খরচ বেড়েছে।

[৮] গত সপ্তাহে ব্যাংক অফ কানাডার গভর্নর টিফ ম্যাকলেম বলেন, সাপ্লাই চেইনে বাঁধা মানে মুদ্রাস্ফীতি আগের চেয়ে কমতে তুলনামূলক সময় বেশি লাগবে।

[৯] তিনি বলেন, এই বিষয়গুলো নিয়ন্ত্রণে আনতে কিছুটা সময় লাগবে, কিন্তু আমাদের অবশ্যই দৃঢ় এবং শক্ত অবস্থানে থাকতে হবে।

 

সর্বাধিক পঠিত