প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাংবাদিক ছাড়াই বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচের সংবাদ সম্মেলন

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপ প্রথম পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে বৃহস্পতিবার মাঠে নামবে বাংলাদেশ। পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে জিততেই হবে টাইগারদের। যদিও এদিন নির্ধারিত সময়ে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলেন দেখা যায়নি দলের কাউকে। প্রথম আলো, চ্যানেলটোয়েন্টিফোর

স্থানীয় সময় বিকেল ৪:৩০ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা) সংবাদ সম্মেলন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও প্রায় এক ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও কেউ আসেননি। সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে জানা যায়, সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭ টা ১৫ মিনিটে। আইসিসি আগের দিনই সংবাদ সম্মেলনের সময় সূচি জানিয়ে দিয়েছিল। সে অনুযায়ী বাংলাদেশি ও স্থানীয় সাংবাদিকেরা মাঠে এসেছিলেন।

কিন্তু সময়মতো বাংলাদেশ দলের কেউই সংবাদ সম্মেলনে না আসায় বিশ্বকাপ কাভার করতে আসা বাংলাদেশি সাংবাদিকেরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিন তিনবার সংবাদ সম্মেলনের সূচি পরিবর্তন করা হয়। পরে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধি হিসেবে যখন ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স এলেন, তখন স্থানীয় সময় রাত পৌনে আটটা। সেই সময় কোনো সাংবাদিকই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন না। সংবাদ সম্মেলনে আইসিসির মিডিয়াকর্মী কালাম ডেভিস বাংলাদেশ দল নিয়ে প্রিন্সকে প্রশ্ন করেন।

সেখানে বিশ্বকাপের প্রথম পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ দলের প্রতিপক্ষ পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের সম্ভাবনার ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয়। প্রিন্স এ ব্যাপারে বলছিলেন, ‘আমরা ওদেরকে খাটো করে দেখছি না। ওরা বিশ্বকাপে আসতে পেরে খুবই গর্বিত। আমি নিশ্চিত ওরা অন্তত একটা জয় নিয়ে যেতে চাইবে। তাই আমাদের জন্য ম্যাচটা সহজ হবে না।’

আগামীকালের ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনির পক্ষ থেকে কে হতে পারে বাংলাদেশ দলের হুমকি—এ প্রশ্নের উত্তরে প্রিন্স বলেছেন, ‘আমরা সকালে আমাদের বিশ্লেষণ সেরে নিয়েছি। কে আমাদের জন্য ভয়ংকর হতে পারে, সে ব্যাপারে যথেষ্ট ধারণা আছে। ওরা স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে বল হাতে ভালো করেছে। তাদের কয়েকজন ব্যাটসম্যানও ভয়ংকর হতে পারে।’

প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর ওমানের বিপক্ষে জয় দিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। তবে আশানুরূপ ভালো ক্রিকেট এখনো খেলতে পারেনি মাহমুদউল্লাহর দল।

পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে সে রকম পারফরম্যান্সের খোঁজ করবে বাংলাদেশ। প্রিন্স যেমন বলছিলেন, ‘আমরা মনে করেছিলাম প্রথম ম্যাচে ১৪০ রান করতে পারব। সেটি হয়নি। স্কটিশরা বাজে শুরুর পরও ভালো করেছে। আমরা অবশ্য গতকাল ঘুরে দাঁড়িয়েছি। ম্যাচটা চাপের ছিল। ওমান তাদের ঘরের মাঠে খেলছে। ওদের বিপক্ষে হারা মানেই বিশ্বকাপ থেকে আমরা বাদ। এসব দিক বিবেচনায় ম্যাচটা কঠিন ছিল। জয়টাও বড় ছিল। তবে কালও মনে হয়েছে আমরা আরও ভালো করতে পারতাম। আশা করি আমরা কালও উন্নতি করব।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত