প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দুই সপ্তাহে মিয়ানমার থেকে এলো সাড়ে আট হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ

ফরহাদ আমিন: [২] কক্সবাজারের টেকনাফের স্থল বন্দর পরিদর্শন করেছেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এইচএম শফিকুজ্জামান।

[৩] শনিবার (১৬অক্টোবর) দুপুরে তিনি টেকনাফ স্থলবন্দরে পৌঁছালে উপজেলা নির্বাহীর কর্মকর্তা ও টাস্কফোর্সের সভাপতি পারভেজ চৌধুরী, স্থল বন্দর কতৃপক্ষ তাকে স্বাগত জানান।

[৪] বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বন্দরের পণ্য উঠা-নামাঘাট, ইমিগ্রেশন ঘাট, ওয়ার হাউসসহ আমদানি রপ্তানী পণ্যের গুদাম ঘুরে দেখেছেন। পরিদর্শন শেষে টেকনাফ স্থলবন্দর হলরুমে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, পরিবহণ মালিক ও শ্রমিকদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন।

[৫] বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এইচএম শফিকুজ্জামান বলেন, দেশে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখতে মিয়ানমার থেকে টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বৃদ্ধি করা হচ্ছে। পেঁয়াজ আমদানিতে যে শুল্কছিল তা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। বিনা শুল্কে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানী করার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান।

[৬] তিনি আরো বলেন, পণ্য বোঝাই ট্রাক ভাড়া বৃদ্ধি, সোনালী ব্যাংকের বুথ স্থাপন, বিশ্রামগারের ব্যবস্থাসহ বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

[৭] এ ব্যাপারে টেকনাফ স্থলবন্দর রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুর নুর বলেন, গত দুই সপ্তাহে ৮হাজার ৩০০মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে মিয়ানমার থেকে। এসব পেঁয়াজ ১০থেকে ১২জন ব্যবসায়ী আমদানি করেছেন।

[৮] স্থলবন্দরের ব্যবসায়ীরা মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছেন। পেঁয়াজ পচনশীল পণ্য হওয়ার পাশাপাশি দেশের বাজারে দাম স্বাভাবিক রাখতে স্থলবন্দর থেকে সারা দিন এ পণ্য ট্রাকভর্তি করে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে।

[৯] এসময় উপস্থিত ছিলেন,টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. পারভেজ চৌধুরী, বিজিবি ব্যাটালিয়ানের উপ-পরিচালক লেঃ এম মুহতাসিম বিল্লাহ শাকিল, রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুর নুর, বন্দরের ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন চৌধুরী, কোয়ারান্টাইন কর্মকর্তা, টেকনাফ সিএন্ডএফএজেন্টের সভাপতি আব্দুল আমিন, ট্রাক মালিক, শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি, খলিল, গণমাধ্যমকর্মীসহ বন্দরে সকল স্থরের কর্মকর্তাগণ প্রমুখ।

সর্বাধিক পঠিত