প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শপিং মলে দুঃখের গান বাজতেই তাণ্ডব শুরু নারীর, অতঃপর…!

ডেস্ক রিপোর্ট : ওই নারীকে থামাতে শেষে পুলিশ ডাকতে হয় মলের কর্তব্যরত ম্যানেজারকে। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার প্যারাডাইস ফ্রুট মার্কেটে ঘটেছে এই ঘটনা। প্রত্যেক মানুষের পছন্দ আলাদা। কারও ক্লাসিক্যাল পছন্দ, কারও জ্যাজ, আবার কারও আবার পছন্দ হিপহপ। দুঃখের গান শুনতেও অনেকে ভালবাসেন। তবে মার্কিন নারীর যে তাতে এত আপত্তি থাকতে পারে তা বোঝার সাধ্য আগে থেকে শপিং মলের কর্মচারীদের ছিল না। এমনিতে ওই নারী ঠিকই ছিলেন। কিন্তু নির্দিষ্ট একটি গান বাজতেই চিৎকার শুরু করে দেন ওই নারী। কর্মীরা এসে তাকে শান্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু তাতে বরং ক্ষতিই বেশি হয়।বাংলাদেশ প্রতিদিন

নারী আরও রেগে যান। কর্মীদের বলেন, অবিলম্বে সেই গান বন্ধ করে অন্য গান চালাতে হবে। কর্মীরা তাকে জানান, এত তাড়াতাড়ি প্লে-লিস্ট পরিবর্তন যাবে না। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই নারী শপিং মলের কর্মীদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। বাধ্য হয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশ এসেও তাকে শান্ত করতে পারেনি। বরং তার রাগ আরও বেড়ে যায়।

উপস্থিত ঊর্ধতন পুলিশ কর্মকর্তা তাকে ব্যবহার সংযত করতে বলতেই তাদের উপরে চিৎকার করতে থাকেন ওই মার্কিন নারী। পুলিশ কর্মকর্তা তাকে মলে থেকেই বিষয়টি মিটিয়ে নিতে বলেছিলেন। তার জেরে ওই নারী পুলিশের বিরুদ্ধেই পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনেন। তাকে মল থেকে বের করে দেওয়ার চেষ্টা চলে বলেও অভিযোগ করেন। এরপরই ওই মার্কিন নারীকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতারের থেকেও ওই নারীর ব্যবহারে কোনও পরিবর্তন আসেনি। জামিনে ছাড়া পেয়ে পুলিশ স্টেশনে তাণ্ডব করতে থাকেন তিনি। সেখানেও গালিগালাজ করতে থাকেন। এরপর আবারও গ্রেফতার করা হয় তাকে। কিন্তু দ্বিতীয়বার হুঁশিয়ারি দিয়ে ছাড়া হয় ওই নারইকে। জামিনের বদলে মোটা অর্থও আদায় করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত