প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টিকটক তারকা জিনিয়ার অজানা কাহিনী

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর মিরপুরের পল্লবীতে তিন কলেজছাত্রী নিখোঁজের ঘটনার মামলায় ৩ নম্বর আসামি করা হয়েছে টিকটক তারকা জিনিয়া ওরফে বুলেটকে। নিয়মিত টিকটক ভিডিও তারকা ছিলেন তিনি। এই টিকটক তারকার ব্যাপারে এবার বেশ চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দারা। যুগান্তর, আরটিভি

জিনিয়া মাদক সেবন, বেপরোয়া জীবন, বিলাসিতা আর একাধিক প্রেমের সম্পর্কে সম্পৃক্ত ছিল। এছাড়াও অন্ধকার জগতের দিকেও নাকি পা বাড়িয়েছেন তিনি।

স্থানীয় একটি সূত্রের মাধ্যমে জানা যায়, তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনার পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদে ইয়াবা সেবন ও একাধিক প্রেমের কথা স্বীকার করেছেন টিকটক জিনিয়া।

মূলত জিনিয়ার পরিবার আগে বস্তিতে ভাড়া থাকতো। বর্তমানে মিরপুর ১১ নম্বর এভিনিউ ফাইভের ১৫ নম্বর লাইনের একটি বাসায় ফ্ল্যাট নিয়ে ভাড়া থাকেন। কিছুদিন আগে তার বাবা মারা যান। তিনি কবিরাজি করতেন। কবিরাজি করতে গিয়ে অনেক লোককে জাদু-টোনা করেছেন। এজন্য স্থানীয়দের কাছে জিনিয়ার বাবার পরিচিতি খুব একটা ভালো নয়। বাবার মৃত্যুর পরই আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন টিকটক তারকা। তার পরিবারে উপার্জনক্ষম কোনো ব্যক্তি নেই। বড় ভাই থাকলেও সে বেকার।

জিনিয়া পরিবারের সদস্যদের মধ্যে সবার ছোট। এলাকায় সবাই জানে ও টিকটক করে আর বিদেশে লোক পাঠায়। আবার মানুষকে বিভিন্ন জায়গায় চাকরির ব্যবস্থা করে দেয়। ওর বড়বোনকেও কবিরাজি শিখিয়েছে ওর বাবা। ওই বোনের ইনকামে তাদের পরিবার চলে।

স্থানীয়রা জানান, জিনিয়া অনেক স্টাইলিশ। কয়েক দিন পরপরই নতুন নতুন ড্রেস পরে। ওর অনেক বয়ফ্রেন্ড। মাঝে মধ্যে বয়ফ্রেন্ডদের নিয়ে মহল্লায় ঝগড়া-বিবাদ হতো।

সর্বাধিক পঠিত