প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] টেকনাফে পৃথক অভিযানে দেড় লাখ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৬

ফরহাদ আমিন: [২] কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক অভিযানে ১ লাখ ৫০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। এসময় ৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

[৩] আটককৃতরা হলেন, সাবরাং ইউপি শাহপরীরদ্বীপ মাঝেরপাড়ার মৃত শাহ আলমের ছেলে মো. সামশুল আলম (২৫), একই ইউপি উত্তর পাড়ার মোহাম্মদ হাসানের ছেলে আক্তার হোসেন (৩৫), হাজীপাড়ার মো. কালা মিয়ার ছেলে মো. হোসেন (২৮), মোচনী ২৬ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা মৃত আহমদ হোসেনের ছেলে জমির হোসেন (৫০), বালুখালী ১৮ নম্বর ক্যাম্পের বাসিন্দা মৃত বশির আহমেদের ছেলে কেফায়েতুল্লাহ (৩০) ও জাদিমুড়া এলাকার মৃত সুলতানের ছেলে মো. করিম (২৭)।

[৪] মঙ্গলবার দুপুরে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নে চিত্রবিনোদন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান (পিএসসি)। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের উপ অধিনায়ক মেজর রুবায়াৎ কবীর ও অপারেশন অফিসার মেজর মুহতাসিম শাকিল।

[৫] অধিনায়ক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার একটি বড় চালান শাহপরীরদ্বীপ বিওপি দায়িত্বপূর্ণ বিআরএম- ০৩হতে ১.৫ কিঃমিঃ দক্ষিণ পূর্ব দিকে মিস্ত্রীপাড়া ঘাট নামক স্থানে নাফনদীর মোহনা দিয়ে পাচার হবে।

[৬] এমন তথ্যের ভিত্তিতে শাহপরীরদ্বীপ বিওপির একটি বিশেষ টহলদল উক্ত এলাকায় সন্দেহভাজন একটি ইঞ্জিনচালিত মাছ ধরার ট্রলার তল্লাশি করে ট্রলারের তেলের ট্যাংকের ভিতরে অভিনব পদ্ধতিতে ফিটিং অবস্থায় ২কোটি ৭০লাখ টাকার মূল্য মানের ৯০হাজার ইয়াবাসহ মাঝি মাল্লা ৫জনকে আটক করতে সক্ষম হয়। এসময় মাদক পাচারে ব্যবহৃত ট্রলারটি ও ৫০০কেজি জাল জব্দ করা হয়।

[৭] এছাড়া মঙ্গলবার ভোররাতে দমদমিয়া বিওপি দায়িত্বপূর্ণ বিআরএম -১০হতে ৮০০গজ দক্ষিণে জাদিমুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বিপরীতে করিমের বসত বাড়িতে ইয়াবা লুকায়িত রয়েছে। এমন তথ্যে টেকনাফ ব্যাটালিয়ান সদরের একটি বিশেষ টহলদল উক্ত বাড়িতে অভিযানে যায়। বিজিবি উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় করিমকে আটক করা হয়।পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে তার তথ্যে ভিত্তিতে ঘরের ফলস সিলিংয়ের উপরে অভিনব পদ্ধতিতে লুকায়িত অবস্থায় ১কোটি ৮০লাখ টাকার মূল্য মানের ৬০হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়।

[৮] তিনি আরো জানান, উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ আটক ছয় আসামির বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার মাধ্যমে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে এবং ট্রলার ও জাল টেকনাফ শুল্ক গুদামে জমা করার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত