প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দহগ্রাম সীমান্তে ভারতীয় ৪৭ মহিষ ও ৯ টি গরু আটক

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: [২] লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নে টাস্কফোর্সের মাধ্যমে অবৈধ ভাবে আনা ভারতীয় ২৩ টি মহিষ ও ৩ টি হরিয়ানা গরু আটক করা হয়েছে।

[৩] বৃস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকালে টাস্কফোর্সের এ অভিযান পরিচালিত হয়। পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমানের নের্তৃত্বে রংপুর ৫১ ব্যাটলিয়নের দহগ্রাম ও আঙ্গরপোতা ক্যাম্পের বিজিবি ও দহগ্রাম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ও আনসারদের সমন্বয়ে
গঠিত টাস্কফোর্স অভিযান পরিচালনা করেন।

[৪] এ সময় সঙ্গে ছিলেন পাটগ্রাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল ইমরান, রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটলিয়নের পানবাড়ি কম্পানি কমান্ডার সুবেদার জাহাবুল ইসলাম, দহগ্রাম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নির্মল চন্দ্র মহন্ত ।

[৫] জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে টাস্কফোর্সের অভিযানে উপজেলার দহগ্রাম ইউনিয়নের মহিমপাড়া এলাকার আমিনুর রহমান ফতুর বাড়ির পিছনে ৬ টি ভারতীয় মহিষ ও মহিমপাড়া সংলগ্ন নদীর ঘাট থেকে ১৭ টি মহিষ ও ৩ টি ভারতীয় হরিয়ানা গরু আটক করা হয়। আটক গরু ও মহিষ গুলো দহগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন প্রধানের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে।

[৬] পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমান বলেন, গরু, মহিষসহ অন্যান্য অবৈধ চোরাচালান প্রতিরোধ করতে টাস্কফোর্সের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আটক গরু গুলোর বিষয়ে বিজ্ঞ চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নির্দেশে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[৭] টাস্কফোর্স অভিযানের পরে আবারো ওই ইউনিয়নে সকাল থেকে বেলা ৩ টা পর্যন্ত রংপুর ৫১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পানবাড়ি কম্পানি কমান্ডার সুবেদার জাহাবুল ইসলামের নেতৃত্বে দহগ্রাম ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা মহিমপাড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬ টি মহিষ ও ৪ টি গরু আটক করে এবং আঙ্গরপোতা ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা আঙ্গরপোতা জিরোপয়েন্ট এলাকায় ৮ টি মহিষ ও ২ টি গরু আটক করে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত