প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সিরাজগঞ্জে কালিবাড়ি রিক্সা স্ট্যান্ডের পিছনে মাদকের রমরমা ব্যবসা

সোহাগ হাসান: [২] সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার কালিবাড়ি রিক্সা ষ্ট্যান্ডের পিছনে হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে, ইয়াবা, ফেন্সিডিল, হেরোইন, মদ, গাঁজা ও নেশাজাতীয় ইনজেকশনের মতো নানান মাদক। কখনো আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে চলছে এসব মাদক বিক্রি। এই স্পটে পাইকারি ও খুচরা মূল্যে মাদক বিক্রি করা হয়। এমনকি যৌন উত্তেজক ইয়াবা ট্যাবলেটও পাইকারি বিক্রি হচ্ছে।

[৩] সচেতন এলাকাবাসীর অভিযোগ, মাদক উদ্ধার ও ব্যবসায়ী গ্রেপ্তারে প্রশাসনের বিশেষ কোনো তৎপরতা নেই। মাদকসেবীরাই এখন বাড়তি আয়ের আশায় ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছে, যাদের অনেকেই পুলিশের সোর্স হিসেবে পরিচিত।

[৪] এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরের অভিযোগে জানা যায়, কালিবাড়ী মহল্লার মনিরুজ্জামান শেখ ওরফে মনু শেখের ছেলে ফোরহাদ, ফরিদ ও রাজু শেখ দীর্ঘদিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। এই মাদক ব্যবসা বন্ধের দাবীতে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও পৌরসভা মেয়র বরাবর গণ স্বাক্ষরে অভিযোগ দিয়েছে এলাকাবাসী।

[৫] অভিযোগকারীরা আরও বলেন, মাদক সেবনের ব্যবহৃত ইনজেকশন, ফেন্সিডিলের বোতল ওই স্পটে পড়ে রয়েছে। এতে হুমকির মুখে এলাকার শিক্ষার্থী ও যুবকেরা।

[৬] সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, মাদক ব্যবসার বিষয়টি আমি অবগত নয়। তবে মাদকের সঙ্গে আমার কোনো আপস নেই। মাদক নির্মূলে আমরা বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করছি।

[৭] সিরাজগঞ্জ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আবু আব্দুল্লাহ জাহিদ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। আপনার মাধ্যমে জানতে পারলাম। মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে হলে সমাজের সব মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। গণসচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। তাহলেই মাদক নিয়ন্ত্রন করা যাবে।

[৮] সিরাজগঞ্জ পৌরসভার মেয়র সৈয়দ আব্দুর রউফ মুক্তা জানান, পৌরসভার জায়গা অবৈধভাবে স্থাপনা গড়ে তুলেছে এবং মাদক ব্যবসা করছে। তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।