প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চকরিয়ায় কৃষকলীগ নেতা হত্যার আসামি গ্রেপ্তার

আয়াছ রনি: [২] কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা ও কৃষকলীগ নেতা সরওয়ার কামালকে বাড়ি থেকে নিয়ে নৃশংসভাবে গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

[৩] বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি দল ঢাকা মহানগরীর পল্লবী থানা এলাকা থেকে আসামী আজিজুল হক সুমনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন।

[৪] গ্রেপ্তার আজিজুল হক সুমন (৩৫) উপজেলার চিরিঙ্গা ইউনিয়নের বুড়িপুকুর এলাকার মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

[৫] র‌্যাব-৭ চট্টগ্রামের সিনিয়র সহকারি পরিচালক (এসএসপি) মো.নুরুল আবছার বলেন, গত ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বাড়ি থেকে কৃষকলীগ নেতা সরওয়ার কামাল (৩৫) কে ডেকে তুলে দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই মোঃ ইউসুফ বাদী হয়ে গত ২১ সেপ্টেম্বর চকরিয়া থানায় এম আজিজুল হক সুমন (৩৫) ও মোঃ ইউসুফ (৪৮) সহ দুইনের নাম উল্লেখ্য করে আরো অজ্ঞাতনামা ৫/৬ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

[৬] তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এরই প্রেক্ষিতে, র‌্যাব-৭ পুলিশের পাশাপশি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ছায়াতদন্ত শুরু করে ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করে।

[৭] এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে হত্যা মামলার এজহারনামীয় প্রধান আসামী ঢাকা মহানগরীর পল্লবী থানা এলাকায় অবস্থান করছে। উল্লেখিত তথ্যের ভিত্তিতে ২৯ সেপ্টেম্বর বিকালে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল উল্লেখিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আজিজুল হক সুমনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন।

[৮] র‌্যাবের এসএসপি মো.নুরুল আবছার বলেন, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি সুমন হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে। মুলত অর্থ সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হত্যাকাণ্ডটি সংঘটিত হয়। আসামির বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে চকরিয়া থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত