প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে সাংগঠনিক তৎপরতা শুরু করবে আওয়ামী লীগ

মনিরুল ইসলাম: [২] শিগগিরই আওয়ামী লীগের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি গঠনের মাধ্যমে সংগঠন ঢেলে সাজানো হবে। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে দ্রুত সাংগঠনিক তৎপরতা শুরু হবে জানালেন আওয়ামী লীগের অন্যতম যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ।

[৩] তিনি আলাপকালে বলেন, আমাদের সাংগঠনিক ইউনিটগুলো সব সময় সক্রিয় আছে। করোনায় তারা মানুষের পাশে ছিল। তবে সাংগঠনিক কার্যক্রম বা কমিটি হয়তো সেভাবে করা যায়নি। শিগগিরই মেয়াদোত্তীর্ণ শাখার কমিটি গঠনের মাধ্যমে সংগঠন ঢেলে সাজানো হবে। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে দ্রুত সাংগঠনিক তৎপরতা শুরু হবে।

[৪] একই কথা বললেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ একটি সদা প্রস্তুত রাজনৈতিক দল। সময়ের প্রয়োজনে যখন যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার, আওয়ামী লীগ তখনই তা গ্রহণ করে আসছে। সব সময়ই নতুন প্রজন্মকে ধারণ করে আওয়ামী লীগ অভীষ্ঠ লক্ষ্যে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে করোনার দ্বিতীয় ধকল সামলে তৃণমূল গোছানোর কাজ শুরু হয়েছে। এর গতি আরো বাড়তে অক্টোবর থেকে শুরু হবে সাংগঠনিক কর্মসূচি।

[৫] এদিকে সাংগঠনিক ‘সক্রিয়তা’ চায় মাঠ পর্যায়ের আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। কারণ
কোভিড-১৯ মহামারির কারণে প্রায় ২বছর সাংগঠনিক কার্যক্রম চালাতে পারেনি ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে দরজায় কড়া নাড়ছে জাতীয় নির্বাচন ও দলটির জাতীয় সম্মেলন। নির্বাচনী ইশতেহার প্রণয়ন, প্রার্থী বাছাই ও প্রশিক্ষিত এজেন্ট তৈরিসহ নানা কাজ হাতে।

[৬] অন্যদিকে জাতীয় সম্মেলনের জন্য দলের জেলা ইউনিটেরও কাউন্সিলর তালিকা লাগবে যার জন্য ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা শাখায় সম্মেলন করে জেলা ইউনিটের কমিটিও করতে হবে।পাশাপাশি চলমান স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি নির্বাচনেও নজর রাখা লাগছে দলটির । সব মিলিয়ে কাজের বড় তালিকা ক্ষমতাসীন দলের হাতে।

[৭] এই পরিস্থিতিতে সব কিছু সহজ ও সাবলীলভাবে করতে সক্রিয় সাংগঠনিক কার্যক্রম চায় আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতা- কর্মীরা। এক্ষেত্রে কেন্দ্রের বড় প্রস্তুতি প্রয়োজন বলে মনে করছেন তারা।

[৮] জানা গেছে, কেন্দ্রীয় নেতারা অক্টোবরের শুরু থেকে সাংগঠনিক কাজের গতি বাড়াতে মাঠে নামবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত