প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেশে চড়া ইলিশের দাম, ভারতে সস্তায় রপ্তানি

মিনহাজুল আবেদীন: [২] প্রতিবেশী দেশ ভারতে গত সপ্তাহ থেকে ইলিশ রপ্তানি শুরু করেছে বাংলাদেশ। এরপর থেকেই দেশে ইলিশের দাম বাড়তে শুরু করেছে। দ্য ডেইলি স্টার

[৩] বিক্রেতারা বলছেন, রপ্তানির জন্য স্থানীয় বাজারে সরবরাহ কমে যাওয়ায় ইলিশের দাম বেড়েছে।

[৪] ভারতের কাছে প্রতি কেজি ইলিশ ১০ ডলার বা প্রায় ৮৫৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ দাম বাংলাদেশের পাইকারি বাজারের তুলনায়ও অনেক কম।

[৫] পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌর শহরের মহিপুর মৎস্যবন্দরব্যবসায়ীদের কাছ থেকে জানা যায়, সেখানে এক কেজির বেশি ওজনের ইলিশ ১২০০ টাকায় এবং এক কেজির কম ওজনের ইলিশ ৬৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

[৬] দেশে ইলিশের একটি বড় উৎস এই মহিপুর মৎস্যবন্দর। বন্দরের মাছ বিক্রেতা ফজলু জানান, গত বুধবার থেকে রপ্তানি শুরু হওয়ার পর ইলিশের দাম মণ প্রতি (৪০ কেজি) ৪ থেকে ৫ হাজার টাকা বেড়েছে।

[৭] বরিশাল পাইকারি মৎস্য বাজারের সাধারণ সম্পাদক নীরব হোসেন টুটুল জানান, গত বৃহস্পতিবার বরিশালের বাজারে ৯০০ গ্রাম ওজনের একেকটি ইলিশ বিক্রি হয়েছে সাড়ে ৯০০ টাকায়। আর ১ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের একেকটি ইলিশ বিক্রি হয়েছে ১২০০ টাকায়।

[৮] বেনাপোল মৎস্য অধিদপ্তরের মান নিয়ন্ত্রণ পরিদর্শক আশহাদুল ইসলাম জানান, গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত বেনাপোল স্থল বন্দর দিয়ে ভারতে মোট ৪৮৮ টন ইলিশ রপ্তানি করা হয়েছে।

[৯] মৎস অধিদপ্তরের একটি সূত্রে জানা যায়, ভারতে রপ্তানি করা বেশিরভাগ ইলিশের ওজন এক কেজির বেশি।

[১০] কম রপ্তানি মূল্য সম্পর্কে জানতে চাইলে রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ইউনিয়ন ভেঞ্চার লিমিটেডের স্বত্ত্বাধিকারী নিজামউদ্দীন বলেন, তার প্রতিষ্ঠান প্রত্যন্ত এলাকার বাজার থেকে কম দামে ইলিশ কিনছে। ইউনিয়ন ভেঞ্চার লিমিটেড ভারতে ৪০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন পেয়েছে।

[১১] বেনাপোল কাস্টমসের কমিশনার আজিজুর রহমান বলেন, ইলিশের দামের বিষয়ে আমরা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুসরণ করছি।

[১২] গত সোমবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ৫২টি প্রতিষ্ঠানকে ভারতে ২ হাজার ৮০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দেয়।

[১৩] এই সিদ্ধান্তের কারণে স্থানীয় বাজারে ইলিশের দামে প্রভাব পড়বে বলে ধারণা করা হলেও, সরকার গত বৃহস্পতিবার আরো ৬৩টি প্রতিষ্ঠানকে ভারতে ২হাজার ৫২০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দেয়।

[১৪] চলতি বছর মন্ত্রণালয়ের আদেশে বলা হয়েছে, আগামী ৩ অক্টোবরের মধ্যে এই রপ্তানি প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে। কারণ ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন সংক্রান্ত জাতীয় টাস্কফোর্স কমিটি আগামী ৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিনের জন্য ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।

সর্বাধিক পঠিত