প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শিক্ষিত ক্রিকেট খেলা দেশগুলোর উচিত ভারতকে অনুসরণ না করা: আফ্রিদি

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] নিউজিল্যান্ডের এভাবে না খেলেই দেশে ফিরে যাওয়াটাকে যেন কোনো ভাবেই মেনে নিতে পারছেননা দেশটির সাবেক তারকা খেলোয়াড় শহিদ আফ্রিদি। বেশ ক্ষুব্ধতার সাথেই আফ্রিদি বলেছেন অন্যান্য ক্রিকেট দেশগুলো যেন ভারতের পদাঙ্ক অনুসরণ না করে। এতে করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড এবং পাকিস্তানের সাথে নিশ্চিতভাবেই সম্পর্কের অবনতি হবে।

[৩] যদি আমরা সত্যিকারের ঘটনার দিকে তাঁকাই, তাহলে আমরা প্রত্যেকেই জানি এই ঘটনার পেছনে কে আছে। এই ধরণের ভুয়া ইমেইলগুলোতে মনোযোগ না দিয়ে শিক্ষিত দেশগুলোর উচিত ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্ব থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখে সিদ্ধান্ত নেয়া। ভারতকে এসবের পেছনে দায়ী বলে আফ্রিদির মন্তব্য

[৪] আফ্রিদির আক্ষেপ আছে নিউজিল্যান্ড সিরিজটা অনুষ্ঠিত না হওয়াতে। কিউই ক্রিকেটারদের পাকিস্তানের মানুষ ভালোবাসে, কিন্তু তাদের এমন আচরণে পাকিস্তানিরা যে হতাশ সেটা স্পষ্ট আফ্রিদির কণ্ঠেই।

[৫] পাকিস্তানের মানুষ নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটারদের ভালোবাসে। তাদের থেকে এরকম কিছু আসলে ক্ষমার অযোগ্য। যদি কোনো সম্ভাব্য হুমকি তারা পেয়েও থাকে, পিসিবিকে জানাতে পারত। কিছুটা সময় দিতেই পারত পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনীকে বলছিলেন আফ্রিদি।

[৬] প্রতিটা সিরিজ শুরুর আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয় অসংখ্য জিনিস, তারপর গিয়ে নিশ্চিত করা হয় সিরিজ। তারপরেও সিরিজ বাতিল কেন, বুঝছেননা খোদ আফ্রিদিই।

[৭] আমরা প্রত্যেকেই জানি যেকোনো সিরিজের আগে সফরকারী দেশের নিরাপত্তা কর্তারা যথাযথ তদন্ত করেন। নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সন্তুষ্ট থাকলেই একমাত্র সবুজ সংকেত প্রদান করা হয় সিরিজ আয়োজনে, সিরিজ আয়োজন নিয়ে আফ্রিদি

[৮] সিরিজগুলো অনুষ্ঠিত না হওয়াতে অনেক ক্ষতির সমুক্ষীণ যে হতে হবে পাকিস্তান ক্রিকেটকে তা অজানা নয় কারোরই। এরপরেও আইসিসির গভর্নিং কমিটির চুপ থাকাটা নিয়ে আপত্তি আছে সাবেক অলরাউন্ডারের।

[৯] কোনো প্রমাণ ছাড়াই দলগুলো তাদের সফর বাতিল করছে, এতে করে তো পাকিস্তান ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এমন সময়ে আইসিসির চুপ করে থাকা উচিত নয়।

[১০] অনেকেই বিশ্বকাপে পাকিস্তান দলের নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কট করা উচিত বলে মত দিলেও, আফ্রিদি চান লড়াই করে নিজেদের আরো একবার প্রমাণ করুক মেন ইন গ্রিনরা।

[১১] আমাদেরকে পারফরম্যান্স এবং ম্যাচ জয়ের মাধ্যমে এসবকিছুর জবাব দিতে হবে। এটা আরো একবার দেখিয়ে দিতে হবে যে, আমরা বিশ্বকাপেও তাদের হারাতে পারি।

[১২] ভারত-পাকিস্তান ম্যাচই শুধু নয়, আসন্ন বিশ্বকাপে যে কিউইদের বিপক্ষে ম্যাচটাও হতে যাচ্ছে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ, সেটা অনুমান করাই যায়।ক্রিকবাজ, ক্রিকইনফো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত