প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ময়মনসিংহ ও কুষ্টিয়ায় করোনা ইউনিটে ৬ জনের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট: ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আক্রান্ত হয়ে দুই ও উপসর্গ নিয়ে দুজন মারা গেছেন। ডেইলি বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান মুন জানান, বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ইউনিটটিতে মারা যাওয়া দুইজনের মধ্যে একজন জামালপুর ও অন্যজন নেত্রকোনার বাসিন্দা। তারা হলেন জামালপুর সদরের শাহানাজ বেগম ও নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার সেলিনা আক্তার। আর করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া দুইজনই ময়মনসিংহের। তারা হলেন- সদরের মোছা. পারুল ও ধোবাউড়া উপজেলার হামিদা বেগম।

চলতি সেপ্টেম্বর মাসে এ নিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে জুলাই মাসে ৪৮২ এবং আগস্ট মাসে ৪১৯ জনের মৃত্যু হয়েছিল এই হাসপাতালে।

ডা. মুন আরো জানান, করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ২৬ জন ভর্তিসহ বর্তমানে মোট ১২৯ জন রোগী ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন ১২ জন। এছাড়াও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৪ জন ব্যক্তি।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম জানান, জেলায় এক দিনে ৪০১টি নমুনা পরীক্ষায় ২০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৪.৯৯ শতাংশ। এ পর্যন্ত পর্যন্ত জেলায় মোট আক্রান্ত ২১ হাজার ৮২৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২০ হাজার ৭২১ জন।

অপর দিকে, কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়ে একজন ও উপসর্গ নিয়ে একজন মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. মেজবাউল আলম এ তথ্য নিশ্চিত করে তিনি জানান, আক্রান্ত এবং উপসর্গ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত হাসপাতালে ৪৮ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরমধ্যে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাই ২২ জন আর উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন আরও ২৬ জন।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ২২১টি নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে নতুন করে ছয়জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২ দশমিক ৭১ ভাগ। এ পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ হাজার ৩৭৫ জন। এরমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৩৭৬ জন এবং মারা ৭৬২ জন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত