প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাঘ ও সিংহের শরীরে করোনা

মাজহারুল ইসলাম : [২] ওয়াশিংটনের জাতীয় চিড়িয়াখানার ৬টি আফ্রিকান সিংহ, ১টি সুমাত্রান বাঘ এবং ২টি আমুর বাঘের মধ্যে ক্ষুধা, কাশি, হাঁচি এবং অলসতা লক্ষ্য করা গেছে বলে জানিয়েছেন একজন তত্ত্বাবধায়ক।

[৩] জাতীয় চিড়িয়াখানায় ৯টি বাঘের কোভিড-১৯ পরীক্ষায় পজিটিভ এসেছে। শুক্রবার এ তথ্য জানিয়েছে ওয়াশিংটনের স্মিথসোনিয়ান ইনস্টিটিউশন।

[৪] চিড়িয়াখানার ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, সমস্ত সিংহ এবং বাঘকে অস্বস্তি, ক্ষুধা কমানোর এবং বমি বমি ভাব দূর করার জন্য ওষুধ দেওয়া হচ্ছে।

[৫] চিড়িয়াখানার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বড় বাঘগুলো চিড়িয়াখানার যেখানে আছে সেখানেই থাকবে এবং দর্শনার্থীদের জন্য কোনও ঝুঁকি তৈরি করবে না । কারণ প্রাণী এবং দর্শনার্থীদের মধ্যে যথেষ্ট দূরত্ব থাকে। অন্য কোন প্রাণীর মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা যায় নেই, তবে পরীক্ষামূলক ভাবে প্রাণীদের করোনাভাইরাসের টিকা দেয়া হতে পারে।

[৬] চিড়িয়াখানার কর্মকর্তারা জানালেন,তারা জানত না কিভাবে প্রাণী সংক্রামিত হয়েছিল এবং চিড়িয়াখানার কর্মীরা পশুর চারপাশে মুখোশ পরে থাকে।

[৭] উল্লেখ্য, নিউ ইয়র্কে এবং বার্সেলোনার চিড়িয়াখানায় গত বছর সিংহ ও বাঘের শরীরে কোভিড-১৯ ধরা পড়েছিল। বিজ্ঞানীরা এক বছরেরও বেশি সময় ধরে জানেন যে পোষা প্রাণী মানুষের কাছ থেকে করোনাভাইরাস ধরতে পারে এবং বিড়াল কুকুরের চেয়ে বেশি সংবেদনশীল বলে মনে হয়। সিংহ এবং বাঘকে বিশেষ করে ২০২০ সালে রোগের ঝুঁকিতে ফেলে দেওয়া হয়েছিল কারণ অনেককেই অনিয়ন্ত্রিত চিড়িয়াখানা এবং ব্যক্তিগত বাসভবনে বন্দী রাখা হয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত