প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] খাদ্য নয়, বিপদের নাম পাউরুটি, ব্যবহৃত হচ্ছে ক্যানসার তৈরির সহায়ক উপাদান

শিমুল মাহমুদ: [২] সম্প্রতি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এবং বেসরকারি নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষক দল দেশে উৎপাদিত বিভিন্ন ব্যান্ডের পাউরুটিতে পটাশিয়াম ব্রোমেট পায়। এরপর নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে গবেষনা করে এবং এর প্রমাণ পায়।

[৩] এই পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য (জনস্বাস্থ্য ও পুষ্টি) মঞ্জুর মোর্শেদ আহমেদ। তিনি বলেন, গত ৮ জুন আমাদের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় থেকে বিক্রি হওয়া ১৯টি ব্যান্ডের পাউরুটির নমুনা পরীক্ষা করে। সেসব পাউরুটি মধ্যে ১৬টির ক্ষেত্রে ৮৪ শতাংশে পটাশিয়াম ব্রোমেটের উপস্থিতি পেয়েছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ।

[৪] পাউরুটিগুলোতে পাওয়া পটাশিয়াম ব্রোমেটের মাত্রা ছিল ৩ দশমিক ৩১ পিপিএম (পার্টস পার মিলিয়ন) থেকে ১২ দশমিক ৯১ পিপিএম। অর্থাৎ ব্যবহৃত আটার ১০ লাখ ভাগের ৩ দশমিক ৩১ থেকে ১২ দশমিক ৯১ ভাগ পটাশিয়াম ব্রোমেট।

[৫] এই পটাশিয়াম ব্রোমেট শরীরে প্রবেশ করলে ক্যানসার, কিডনি, মস্তিষ্ক, জিনগত রোগ, থাইরয়েড গ্রন্থির রোগ তৈরির সহায়ক হিসেবে কাজ করে।

[৬] দেশে প্রতিদিন প্রায় ১ হাজার টন পাউরুটি উৎপাদিত হয় বলে বাংলাদেশ অটো-বিস্কুট অ্যান্ড ব্রেড ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য। এসব পাউরুটির মেয়াদ থাকে তিন দিন পর্যন্ত। সংগঠনটির সভাপতি শফিকুর রহমান ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, পাউরুটির চাহিদা অনেক। এখন অনেকে বাইরে নাশতা না খেয়ে পাউরুটিসহ অন্যান্য বেকারির প্রক্রিয়াজাত খাবার খান।

[৭] নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, পাউরুটি ফুলাতে পটাশিয়াম ব্রোমেট ও পটাশিয়াম আয়োডেট ব্যবহৃত হয়। এগুলো ছাড়াও আরও কিছু ‘ইমপ্রুভার’ ব্যবহৃত হয়, যা দিয়ে পাউরুটির স্বাদ ও আকার ঠিক করা হয়। এই পটাশিয়াম ব্রোমেট ও পটাশিয়াম আয়োডেটের দাম তুলনামূলক কম হওয়ায় দেশে এর ব্যবহার বেশি। পরীক্ষায় পাওয়া ফলাফলের ভিত্তিতে রুটি, পাউরুটি ও বেকারি পণ্যে পটাশিয়াম ব্রোমেট ও পটাশিয়াম আয়োডেট ব্যবহার বন্ধের নির্দেশ দিয়ে বিজ্ঞপ্তিও জারি করেছে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত