প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশে শহরাঞ্চলে প্রতি ৫ জনে ১ জন দরিদ্র: বিশ্বব্যাংক

খালিদ আহমেদ : [২] বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যার অনেকেই সরকারের সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচির বাইরে রয়েছে।

[৩] সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিতে গ্রামীণ অঞ্চলকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যদিও, শহর এলাকায় প্রতি ৫ জনে একজন দরিদ্র এবং শহরবাসীর অর্ধেক দারিদ্রের ঝুঁকিতে রয়েছে।

[৪] গ্রামীণ ও শহর এলাকার মধ্যে সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচির ভারসাম্য রাখা প্রয়োজন বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

[৫] আজ বৃহস্পতিবার সংস্থাটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।

[৬] এতে বলা হয়েছে, শহর এলাকায় প্রায় ১১ শতাংশ মানুষ সামাজিক সুরক্ষায় আছেন যদিও ১৯ শতাংশ মানুষ দরিদ্র।

[৭] অন্যদিকে, গ্রামাঞ্চলে ২৬ শতাংশ মানুষ দরিদ্র যদিও ৩৬ শতাংশ মানুষ সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচির আওতায় রয়েছেন।

[৮] সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিগুলোতে আরো জোর দিলে বাংলাদেশের দারিদ্র উল্লেখযোগ্য হারে দূর করতে পারে বলে এ প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

[৯] এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন কর্মকৌশলের কেন্দ্রে রয়েছে সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচি। এর মাধ্যমে দরিদ্র মানুষ উপকৃত হচ্ছে।

[১০] সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিগুলোতে আরও বেশি জোর দিলে বাংলাদেশ আরও উল্লেখযোগ্য হারে দারিদ্র দূর করতে পারবে।

[১১] ‘বাংলাদেশ সোশ্যাল প্রটেকশন পাবলিক এক্সপেনডিচার রিভিউ’ শিরোনামের প্রতিবেদনে বাংলাদেশের চলমান সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচি ও প্রকল্পে বিনিয়োগ এবং সেগুলোকে কিভাবে আরও গতিশীল করা যায় সে বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে।

[১২] বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের অপারেশনস ম্যানেজার দনদন চেন বলেন, ‘গত কয়েক দশকে বাংলাদেশ সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচির পরিধি অনেক বাড়িয়েছে। বর্তমানে দেশের প্রতি ১০ ঘরের ৩ ঘর এই পরিধির আওতায় রয়েছে।’

‘[১৩] চলমান বৈশ্বিক করোনা মহামারির কারণে আরও জোরালো কর্মসূচির প্রয়োজন দেখা দিয়েছে’ উল্লেখ করে তিনি আরও সমন্বিত কর্মসূচির ওপর জোর দেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত