প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] স্কুল-কলেজ খোলার আনন্দে শিক্ষার্থীরা, উদ্বেগ অভিভাবকদের

আব্দুল্লাহ মামুন: [২] করোনা মহামারিতে প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর আগামীকাল রোববার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে। শিক্ষার্থীরা ফিরছে সশরীর ক্লাসে। অধিকাংশ অভিভাবক এই সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক বলেছেন। কিন্তু সন্তানদের সুরক্ষার বিষয়টিও তাদের মাথায় রয়েছে। এ জন্য অভিভাবকেরা চান, স্কুল খোলার ক্ষেত্রে যে ১৯ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, সেগুলো যাতে যথাযথভাবে মানা হয়।

[৩] শিক্ষামন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী মাস্ক ছাড়া কেউ শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করতে পারবে না। শিক্ষার্থী, শিক্ষকসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িতদের মাস্ক পরতে হবে। একেবারে কম বয়সী যারা, তাদের কোনও সংকট হচ্ছে কিনা, সেটা শিক্ষকদের খেয়াল রাখতে হবে।

[৪] জনস্বাস্থ্যবিদেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে মনে করছেন। তবে অবশ্যই সেটি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। একজন জনস্বাস্থ্যবিদ পরামর্শ দিয়েছেন, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকের কারও করোনার উপসর্গ দেখা দিলে সহজেই যাতে পরীক্ষা করানো যায়, সেই ব্যবস্থা করতে হবে।

[৫] অভিভাবক জেরিন মাশফিক বলেন, মেয়েকে আবাসিক স্কুলে রেখে আসতে অনেক চিন্তা হচ্ছে। অন্যান্য অভিভাকদের সঙ্গে কথা হলে তারাও একই কথা বলেছেন। অনেক অভিভাবক তাদের সন্তানদের স্কুলে নিয়ে আসতে ভয় পাচ্ছেন, অন্যদিকে আর্থিক সমস্যা তো আছে। এনিয়ে অভিভাবকরা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।

[৬] দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রিদিতা বলেন, দীর্ঘ দিন পর স্কুলে এসে অনেক আনন্দিত। র্দীঘ বন্ধি সময় কাটিয়ে এখন বন্ধু-বন্ধবীদের সঙ্গে দেখা ও খেলাধুলার সুযোগ পেয়ে অনেক উল্লসিত তারা।

[৭]ভ্যাকসিন ছাড়া এবং স্কুলগুলোর সন্তোষজনক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার প্রস্তুতি ছাড়া সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে অভিভাবকরা মানসিকভাবে প্রস্তুত নন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল পেরেন্টস ফোরামের সভাপতি এ কে এম আশরাফুল হক। শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল পেরেন্টস ফোরামের পক্ষে তিনি এ কথা বলেন।

সর্বাধিক পঠিত