প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]দক্ষিণপূর্ব এশীয় দ্বীপগুলোর মৃত মানুষের ডিএনএ বিস্ময়জনকভাবে জটিল, বলছে প্রাচীন ডিএনএ

লিহান লিমা: [২] নতুন এক গবেষণায় প্রায় ৭ হাজার ৩’শ বছর আগের ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে বসবাসকারী এক তরুণীর দেহাবশেষ খুঁজে পাওয়া গেছে। ওই তরুণী প্রাচীন পূর্ব এশীয় ডেনিসোভান বংশের ছিলো। সায়েন্স নিউজ

[৩] তার কঙ্কাল দক্ষিণ সুলাওয়েসির লেয়াং প্যানিঞ্জ গুহা থেকে শনাক্ত করা হয় । তার ডিএএ বিশ্লেষণ দেখায় তিনি প্রধানত পূর্ব এশীয় হোমো সেপিয়েন্সের বংশধর ছিলেন, যারা সম্ভবত কমপক্ষে ৫০ হাজার বছর আগে গ্রীষ্মমণ্ডলীয় স্থানে পৌঁছেছিলেন।

[৪] এখন পর্যন্ত অনেক বিজ্ঞানীর ধারণা দক্ষ নাবিক ও কৃষকরা অস্ট্রেনেশিয়ান নামে পরিচিত তারা সাড়ে তিন হাজার বছর আগে ওয়ালেসিয়ার (এশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার দ্বীপগুলোর একটি গ্রুপ যার মধ্যে সুলাওয়েসি, লম্বোক ও ফ্লোরেস রয়েছে) মাধ্যমে পূর্ব এশিয়ান জিন ছড়িয়ে দেয়।

[৫] অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনের গ্রিফিস বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতত্ত্ববিদ অ্যাডাম ব্রুম বলেন, প্রাচীন সুলাওয়েসি নারীর ডিএনএ ওয়ালেসিয়ায় এশীয় বংশধরে উপস্থিতি সম্প্রসারণের অনেক আগের। মারা যাওয়ার সময় এই তরুণীর বয়স ছিলো ১৭ বা ১৮।

[৬] গবেষক দলের সন্দেহ সুলাওয়েসিতে আসার পর এই নারীর পূর্বপূরুষকরা দ্বীপটিতে বসবাসকারী ডেনিসোভানদের সঙ্গে মিলিত হয়েছিলো। ডেনিসোভানরা রহস্যময় প্রাচীন হোমিনিডদের একটি দলের প্রায় ৩ লাখ বছর আগে সাইবেরিয়ায় এসেছিলেন এবং ৩০ হাজার থেকে ১৫ হাজার বছর আগ পর্যন্ত পাপুয়া নিউগিনিতে বেঁচে ছিলেন। গবেষকরা অনুমান করেন, এই নারীটি তার ডিএনএর প্রায় ২.২ শতাংশ ডেনিসোভান থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে পেয়েছিলেন।

[৭] তার ডিএনএ বর্তমান পাপুয়ান এবং আদিবাসী অস্ট্রেলিয়ানদের সঙ্গে বর্তমানের মূল ভূখণ্ড পূর্ব এশীয়দের সঙ্গে অনেক বেশি সাদৃশপূর্ণ। এই তুলনাগুলো বলছে তিনি প্রায় ৩৭ হাজার বছর আগে আবির্ভূত একটি স্বতন্ত্র গোষ্ঠির বিবর্তনীয় বিভক্তির সময় স্বতন্ত্র জেনেটিক রেখার অন্তর্গত ছিলেন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত