প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কামরুল হাসান মামুন: আমাদের নায়ক নায়িকারা এমনভাবে বাংলা বলে মনে হয় বাংলা তার মাতৃভাষা না

কামরুল হাসান মামুন: বাংলাদেশের নায়কদের মত এত মূর্খ, গেঁয়ো, অশিক্ষিত নায়ক পৃথিবীতে খুব কমই আছে। হোক সেটা সিনেমা কিংবা টিভি নাটকের নায়ক। তবে ব্যতিক্ৰমও আছে। খুব অল্পসংখ্যক হলেও কয়েকজন আছে যারা এর বিপরীত এবং সেটা নাটকে সিনেমায় না। প্রথম কথা হলো নায়ক মানে সুন্দর চেহারা হতে হবে এবং এই সুন্দর চেহারা ভাবটা অভিনয়ের সময় চরিত্র যাই হউক বজায় রাখতে হবে। আজ থেকে বেশ কয়েক বছর আগে আমার স্ত্রী যখন অপূর্বকে দেখে তার প্রথম রিঅ্যাকশন ছিল কি ugly! কত কৃত্রিম! আজ পর্যন্ত তার অভিমত পাল্টায়নি। কোন এক সাক্ষাৎকারে সম্ভবত শুনেছি সে কেমন স্ত্রী চায়। সেইসব চাওয়া শুনে মনে হয়েছে বাংলাদেশের গড় মানুষের চেয়ে নিচের ক্যাটাগরির মানুষের চেয়েও তার রুচি জ্ঞান, চিন্তা ভাবনা নিম্নস্তরের। নাটক সিনেমায় যারা অভিনয় করে তারা সাহিত্য চর্চা করে বলে একটু উন্নত মানসিকতার হয়। কিন্তু ডায়ালগ মুখস্ত করে যারা অভিনয় করে তাদের পরিবর্তন কোনদিন হয় না। পাশের দেশ ভারতের টিভিতে “কফি উইথ করণ” নামে একটি অনুষ্ঠান মাঝে মধ্যে দেখা হতো। সেখানে বলিউডের নায়ক নায়িকা অভিনেতা অভিনেত্রীদের সাথে আলোচনা অনুষ্ঠানে দেখতাম কত esay going ভাবে কত সুন্দর করে কথা বলে। আর আমাদের গুলার কথা শুনলে দৌড়ে পালতে ইচ্ছে করে। না পারে বাংলা, না পারে ইংরেজি। ফলে দুইটা মিলিয়ে কি যে এক জগাখিচুড়ি মার্কা কথা হয় তা কেবল রাগ বাড়ায়। এমনভাবে বাংলা বলে মনে হয় বাংলা তার মাতৃভাষা না।

শুনেছি সে নাকি তিন নম্বর বিয়ে করেছে। এইবার একদম আমেরিকা প্রবাসী। মারহাবা। Congratulations! মানে অভিনয়ে একটু ভাটা পড়লে আমেরিকায় সটকে পড়ার রাস্তাটা পরিষ্কার করল আরকি। এটাই বাংলাদেশের দুর্ভাগ্য যে গত ৩০ বছরে আমাদের সেলিব্রিটিদের একটি বিরাট অংশ নিজ দেশ, নিজের ক্যারিয়ার ছেড়ে বিদেশ চলে গিয়েছে। সাংস্কৃতিক কর্মীদের বয়স যত বাড়ে সাধারণত তাদের মেধা প্রজ্ঞা ইত্যাদি বাড়ে। সেইসব দিয়ে দেশের নতুন প্রজন্মকে তৈরী করার কাজে ব্যয় করে। দেশের অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকে। নানা মানবিক কাজে অংশগ্রহণ করে। কে কয়টা বিয়ে করবে সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। তারপরও সেলিব্রিটি বলে কথা। তাই কথা হবেই।

লেখক : শিক্ষক, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সর্বাধিক পঠিত