প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভোলা পুলিশ লাইন্সে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় গান গেয়ে মঞ্চ মাতালেন ডিআইজি

তাপস কুমার: [২] ‘‘থাকতে পারঘাটাতে তুমি পারের নাইয়া, আমার দিন কি এমনি যাবে বইয়া”, “এই যে দুনিয়া কিসের লাগিয়া এত যত্নে গড়াইয়াছেন সাই” সব শ্রুতিমধুর লোকগীতি, দেহতত্ত্ব ও মুর্শিদী গান গেয়ে বুধবার রাতে ভোলা পুলিশ লাইন্সে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় মঞ্চ মাতান বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি এস.এম আক্তারুজ্জামান।

[৩] ভোলা আগমন উপলক্ষে তার সম্মানে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ও নৈশভোজের আয়োজন করে ভোলা জেলা পুলিশ। বুধবার রাতে পুলিশ লাইন্স মিলনায়তনে এ মনোঞ্জন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বরিশাল রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি এস.এম আক্তারুজ্জামান।

[৪] অনুষ্ঠানের শুরুতে বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি ও উপস্থিত অতিথিদের অভ্যর্থনা জানিয়ে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ভোলা জেলা প্রশাসক মোঃ তৈফিক ই-লাহী চৌধুরী, বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ মোঃ হাসানুল ইসলাম, কোস্টগার্ডের দক্ষিণ জোনের কমান্ডার,সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান সহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

[৫] এরপর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজির পাশাপাশি এ সময় মঞ্চে গান পরিবেশন করেন ভোলার জেলা ও দায়রা জজ ড. এবিএম মাহামুদুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারের পুত্র আরশিল ও কন্যা আমিরা, ডিআইও-১ মোঃ জাকির হোসেন ও তার মেয়ে ইয়াকা, গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মানিক, ট্রাফিক পুলিশের এ.টি.এস.আই মোঃ জালাল, নারী পুলিশ সদস্য ইপা রানী।

[৬] এছাড়া অতিথি শিল্পী হিসেবে মনোমুগ্ধকর গান পরিবেশন করেন বরিশাল ও ভোলার মঞ্চ মাতানো কন্ঠ শিল্পী নিপা সাহা, বাঁধন তালুকদারসহ পুলিশ এবং তাদের পরিবারের সদস্যদরা।

[৭] সন্ধ্যার পর থেকে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত চলে সঙ্গীতানুষ্ঠান। এ সময় জমকালো আয়োজনের সুরের মূর্ছনায় মেতে ওঠে গোটা পুলিশ লাইন্স চত্বর। পুলিশ ও পুলিশের পরিবারের সদস্যসহ বিভাগীয় ও জেলাপর্যায়ের কর্মকর্তা এবং সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেন।

[৮] সমাপনী বক্তব্যে ডিআইজি এস.এম আক্তারুজ্জামা বলেন, আমরা সকলে পুলিশের একটি পরিবারের সদস্য। ভোলার বর্তমান পুলিশ সুপার নিষ্ঠা ও শততার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। তাই তার হাতকে শক্তিশালী করতে ভোলা জেলা পুলিশের সকল সদস্যকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বানন জানান বরিশাল বিভাগীয় পুলিশের প্রধান এই কর্মকর্তা।

[৯] অনুষ্ঠানের শেষে পর্যায়ে পূত্র আরশিলের আঁকা ছবি উপহার হিসেবে ডিআইজির হাতে তুলে দেন ভোলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত