প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনা ও উপসর্গে বিভিন্ন জেলায় ৫৬ জনের মৃত্যু

হ্যাপি আক্তার: [২] দেশের কোথাও কোথাও করোনায় মৃত্যু ও রোগীর সংখ্যাও ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে। তবে জেলা হাসপাতালে করোনা ইউনিটে ভর্তি রোগীর চাপ বেড়েছে। তবে কোনো কোনো এলাকা থেকে হাসপাতালে শয্যা ও অক্সিজেন সংকটের খবরও পাওয়া যাচ্ছে।

[৩] শুক্রবার (১৩ আগস্ট) দেশের বিভিন্ন জেলায় জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

[৪] গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে চট্টগ্রামে ৮, রাজশাহীতে ১৩, ময়মনসিংহে ১৬, নোয়াখালীতে ৩, কিশোরগঞ্জে ৬,  দিনাজপুরে ২, খুলনায় ৫, কুষ্টিয়ায় ৩ জন মারা গেছেন।

চট্টগ্রাম: এ জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়ে আরও আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল এক হাজার ১১১ জনে। একই সময়ের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৬১৬ জনের। এর মধ্য দিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৯৩ হাজার ৮৫০ জনে।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রাজশাহী: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ওয়ার্ডে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে রাজশাহী জেলার আটজন, পাবনার তিনজন, নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন করে রয়েছেন। মৃত ১৩ জনের মধ্যে পাঁচজন করোনা পজিটিভ ও একজন নেগেটিভ ছিলেন। বাকি সাত করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সকালে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনা পজিটিভি ছিলেন ছয়জন। বাকি ১০ জন উপসর্গ নিয়ে মারা যান। মৃতদের মধ্যে ময়মনসিংহ জেলার ১৩ জন, নেত্রকোনা, গাজীপুরের ও পাবনার একজন করে রয়েছেন।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সকালে হাসপাতালের ফোকালপারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নোয়াখালী: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় এ জেলায় আক্রান্ত হয়ে আরও তিনজন মারা গেছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২১২ জনে। এ সময় নতুন করে ১৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। জেলায় মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১৮ হাজার ৫৬৫ জন।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টায় ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নোয়াখালীর সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় ৫৬৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন ৭৮ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০ হাজার ৮৬৫ জনের। জেলায় মোট মারা গেছেন ১৯১ জন। এ দিন সুস্থ হয়েছেন ৮৬ জন।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) রাতে জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ও কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দিনাজপু: দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭০ জনে। এ সময় নতুন করে ৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সকালে দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. আব্দুল কুদ্দুস ঢাকা পোস্টকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৭৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৮৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ৬১ শতাংশ।

খুলনা: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে খুলনার দুটি হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে চারজন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে চারজন ও বেসরকারি গাজী মেডিকেলে একজন মারা গেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত