প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বেসরকারী খাতে করোনা টিকা অব্যবস্থাপনা বাড়বে বলে আশংকা সংসদীয় কমিটির

মনিরুল ইসলাম: [২] করোনাভাইরাসের টিকা বিদেশ থেকে আমদানির আগে টিকার মেয়াদ ৬ মাস আছে কিনা তা দেখে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

[৩] বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খান।

[৪] বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খান বলেন, বেসরকারিভাবে টিকা দেওয়ার জন্য মোবাইলে এসএমএস দেওয়া হচ্ছে। আমি নিজেই এ ধরনের এসএমএস পেয়েছি। কোন কোন ধরনের টিকা পাওয়া যায়, সেটাও জানানো হচ্ছে। এ বিষয়ে আমরা সতর্ক থাকতে বলেছি।

[৫] তিনি বলেন, কোনোভাবেই বেসরকারিভাবে টিকা না দেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। কারণ বেসরকারি খাতে টিকা এলে অব্যবস্থাপনা বেড়ে যাবে। দেখা যাবে, মেয়াদোত্তীর্ণ টিকা নিয়ে আসবে। সব দোষ পড়বে সরকারের ওপর। আবার সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা পর্যন্ত টিকা বিক্রিতে নেমে পড়বেন। এ ব্যাপারে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

[৬] তিনি আরও বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই টিকা কমিটির সদস্য। আমরা তাকে বলেছি, ওই কমিটিতে যেন আমাদের এই পর্যবেক্ষণ জানানো হয়।

[৭] কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে বিভিন্ন দেশ বা প্রতিষ্ঠান থেকে ভ্যাকসিন আমদানির ক্ষেত্রে ভ্যাকসিনের মেয়াদ যাতে ৬ মাস থাকে, তা নিশ্চিতকরণের পাশাপাশি পাইপলাইনে থাকা ভ্যাকসিনগুলো দ্রুততম সময়ে আনার জন্য তৎপরতা অব্যাহত রাখতে কমিটি থেকে মন্ত্রণালয়কে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

[৮] কমিটির বৈঠকে জানানো হয়, দেশে এখন চারটি কোম্পানির কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া হচ্ছে। এগুলো হলো, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার-বায়োএনটেক, মর্ডানা ও সিনোফার্মের টিকা। গত ১১ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন উৎস থেকে এসব কোম্পানির মোট দুই কোটি ৯০ লাখ ৪৩ হাজার ৯২০ ডোজ টিকা এসেছে। আর গত ১০ অগাস্ট পর্যন্ত এক কোটি ৯৬ লাখ ৭১ হাজার ৬২০ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। মজুত আছে ৫৯ লাখ ৭২ হাজার ৩০০ ডোজ।

[৯] বৈঠকে ১০ বছর বয়স পর্যন্ত বিদেশে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীদের টিকার আওতায় আনার জন্য পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানানোর পরামর্শ দেওয়া হয়।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত