প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিভোর্সের পর বিশ্বে পঞ্চম ধনী হলেন বিল গেটস

রাশিদ রিয়াজ : বিশ্বের চতুর্থ ধনী ছিলেন মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। ডিভোর্স হওয়ার পর স্ত্রী মেলিন্ডার সঙ্গে দেনা পাওনা চুকিয়ে ফেলেছেন তিনি। এতে তার সম্পদের পরিমান কমে দাঁড়িয়েছে ১২৯.৬ বিলিয়ন ডলার। মেলিন্ডার পাওনা শেয়ার বিল গেটস তাকে স্থানান্তর করে দিয়েছেন। এর ফলে বিশ্বের চতুর্থ ধনীর স্থানে উঠে গিয়েছে ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ এবং তার সম্পদের পরিমান ১৩০.৩ বিলিয়ন ডলার। ফোর্বস

গত সপ্তাহে মেলিন্ডাকে বিল গেটসের পক্ষে ক্যাসকেড ইনভেস্টমেন্ট ২.৪ বিলিয়ন ডলার স্থানান্তর করেন। এর আগে গত মে মাসে ডিভোর্স ঘোষণার পরপরই মেলিন্ডাকে বিল গেটস আরো ৩.২ বিলিয়ন ডলার দেন। তারা ২৭ বছর সংসার করার পর এ ডিভোর্স হয়। বিশ্বের এত বেশি মূল্যের ডিভোর্স এর আগে ঘটেনি। মেলিন্ডা ১৯৮০ সালে বিল গেটসের মাইক্রোসফটে যোগ দেয়ার পর তাদের মধ্যে প্রথম পরিচয় হয়েছিল। এক টুইট বার্তায় তারা ঘোষণা দেন, আমাদের সম্পর্কটি নিয়ে অনেক চিন্তা ভাবনা ও কাজের পর আমরা আমাদের বিয়ের সমাপ্তি টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বিলিওনেয়ার এই দম্পতির তিন সন্তান আছে এবং তারা যৌথভাবে বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন পরিচালনা করেন।

বিয়ে বিচ্ছেদের পরও তারা এ ফাউন্ডেশন আরো কয়েক বছর এক সঙ্গে পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এক বিবৃতিতে তারা বলেন, ফাউন্ডেশনে আমরা এক সাথে কাজ করে যাবো। কিন্তু জীবনের পরবর্তী ধাপে আমরা একসাথে এগিয়ে যেতে পারবো বলে আমরা আর বিশ্বাস করি না। প্রতিষ্ঠানটি সংক্রামক রোগ ও শিশুদের টিকাদান উৎসাহিত করতে বিলিয়ন ডলার অর্থ ব্যয় করে। বিল গেটস ও মেলিন্ডা বিনিয়োগকারী ওয়ারেন বাফেটস দ্যা গিভিং প্লেজ- উদ্যোগের সঙ্গে জড়িত যার লক্ষ্য হল-ধনীদের সম্পত্তির সিংহভাগ দাতব্য কাজে ব্যয় করা। ফোর্বসের হিসেবে, বিল গেটস যখন বিশ্বের চতুর্থ ধনী, তখন তার সম্পদের পরিমাণ ছিল প্রায় ১২৪ বিলিয়ন ডলার। তিনি মূলত এ অর্থের মালিক হয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় সফটওয়্যার কোম্পানি মাইক্রোসফটের মাধ্যমে। ১৯৭০ সালে প্রতিষ্ঠা করা এ কোম্পানিটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা তিনি।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত