প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] শিল্পী সমিতির সদস্যপদ না থাকলেও শুটিংয়ে বাধা নেই পরীমণির

ইমরুল শাহেদ: [২] মাদককাণ্ডে চিত্রনায়িকা পরীমণি গ্রেপ্তার হওয়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে চলচ্চিত্রশিল্প থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া না গেলেও গ্রেপ্তারের তিনদিন পর চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি থেকে তার সদস্যপদ স্থগিত করা হয়েছে। কিন্তু তার অভিনয়ের ব্যাপারে কোনো বাধা নেই। কেউ কেউ এখন পরীমণিকে নিয়ে কথা বলতে শুরু করেছেন। এই সমিতির সহ-সভাপতি ডিপজল সাংগাঠনিকভাবে পরীমণির সদস্যপদ স্থগিতের পক্ষে হলেও তিনি ব্যক্তিগতভাবে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে টিভি চ্যানেলগুলোকে বলেছেন, ‘আমরা কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নই। শিল্পী সমিতি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমরা সবাই মিলে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আইনের বিপক্ষে যাওয়া যাবে না। এখন দেখা যাক সামনে কী হয়। আইনকে পাশ কাটিয়ে পরীমণির বিষয়ে আমরা পক্ষে বা বিপক্ষে কোনো দিকেই জড়াতে চাই না। আইন পরীমণির বিষয়ে যে সিদ্ধান্ত নেবে আমরা সেটা মেনে নেব’।

[৩] সভাপতি মিশা সওদাগর একটি টকশোতে বলেন, ‘পরীমণিকে তিনি একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবেই জানেন। এর আগে তার বিরুদ্ধে আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ আসেনি।’ পরিচালক কাজী হায়াৎ বলেন, ‘পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ার গরিব ঘরের স্মৃতি নামের মেয়েটিকে কারা পরীমণি বানিয়েছে? কারা তাকে মাদকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে? পিরোজপুরের স্মৃতি ওরফে পরীমণি ঢাকায় আসার আগে কখনো কি হুইস্কি, বিয়ার, শিভাস রিগ্যাল, রেড লেবেল, ভদকা- এসবের নাম শুনেছিলেন?’

[৪] তিনি বলেন, ‘আসলে পরীর সৌন্দর্যই পরীর শত্রু। এ কারণেই বেশিরভাগ মানুষ তার সান্নিধ্যে গেছেন। তারাই তাকে বিপথে ঠেলে দিয়েছেন। তারা তাকে সুন্দর পথের সন্ধান দেননি। তারা পরীমণির সৌন্দর্যকে সৃজনশীল কাজে লাগাননি।’ তিনি বলেন, ‘গেঁয়ো মেয়ে স্মৃতিকে যারা উচ্চাভিলাসী, মাদকাসক্ত বানিয়েছেন তারা আজ কোথায়? তাদের নাম প্রকাশ্যে আনা হোক। তাদের হাত বেঁধে নিয়ে যাচ্ছে না কেন পুলিশ!’

[৫] এ ব্যাপারে পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘অনেক কিছুই শুনছি। তবে এটা মনে রাখতে হবে পরীমণির মামলা তদন্তাধীন। আমরা বিচারের দিকে চেয়ে আছি। যদি পরী দোষী হন, তা হলে সাংগঠনিকভাবে একটা ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে সেটি শিল্পী সমিতিকে সঙ্গে নিয়ে, যৌথভাবে”। পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু একটু ভিন্নভাবে কথা বলেন। তার ভাষায়, ‘আমার ঘরে এসব ঘটে না কেন? শাবানাকে নিয়ে কোনো ঘটনা ঘটে না কেন? আলমগীর সাহেবকে নিয়ে কোনো ঘটনা ঘটে না কেন? তার মানে কিছু লোক ভালো, কিছু লোক মন্দ’। সম্পাদনা: মিনহাজুল আবেদীন। ​

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত