প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অন্তঃসত্ত্বা ও দুগ্ধদানকারী নারীরা টিকা নিতে পারবেন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শিমুল মাহমুদ: [২] অন্তঃসত্ত্বা ও স্তন্যদায়ী নারীদের কোভিড-১৯ টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তাদের টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশনা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। রোববার কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সংগ্রহ ও ব্যবস্থাপনা টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের টিকা কর্মসূচির পরিচালক ডা. শামসুল হক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

[৩] টিকা নিতে ইচ্ছুক গর্ভবতী নারীকে অবশ্যই একজন রেজিস্টার্ড চিকিৎসক দিয়ে পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে সব কিছু বোঝাতে হবে। সম্মতিপত্রে গর্ভবতী নারী ও কাউন্সেলরের (রেজিস্টার্ড চিকিৎসক) স্বাক্ষর নিয়ে তারপরই টিকা দিতে হবে।

[৪] গর্ভবতী নারীদের মধ্যে যারা টিকা দিতে পারবেন না। ক. গর্ভবতী নারী টিকা নেওয়ার দিন অসুস্থ থাকলে তাকে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া যাবে না। খ.অনিয়ন্ত্রিত দীর্ঘমেয়াদী রোগে আক্রান্ত গর্ভবতী নারীকে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া যাবে না। গ. কোনো গর্ভবতী নারীর টিকা অ্যালার্জির পূর্ব ইতিহাস থাকলে তাকে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া যাবে না। ঘ.কোনো গর্ভবতী নারী যদি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার পর এইএফআই কেস হিসাবে শনাক্ত হন, তবে তাকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া যাবে না। ঙ. সম্মতিপত্রে টিকাগ্রহীতার আইনানুগ অভিভাবক ও কাউন্সেলিং চিকিৎসকের স্বাক্ষর ছাড়া টিকা দেওয়া যাবে না।

[৫] বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, যেখানে টিকা নিলে বিরূপ প্রভাবের আশঙ্কার চেয়ে উপকার হওয়ার সম্ভাবনা বেশি, সেখানে অন্তঃসত্ত্বানারীদেরও কোভিড টিকা নেয়া উচিত।

[৬] ঢাকা মেডিকেল কলেজের গাইনি বিভাগের অধ্যাপক শিখা গাঙ্গুলি বলেন, গর্ভবতী নারী যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের অধিকাংশের অবস্থা শোচনীয় পর্যায়ে চলে যাচ্ছে। এই কারণে আমরা চাচ্ছি তারা যেন টিকা দেয়। কারণ এখন জীবন বাঁচানোই মূল লক্ষ্য।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত