প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কুমিল্লায় ২৫৫ টি কেন্দ্র চলছে গণ টিকাদান

রুবেল মজুমদার: [২] কুমিল্লা জেলার ২৫৫টি টিকাকেন্দ্রে আজ শনিবার মহাসমারোহে গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রতিটি টিকাকেন্দ্রেই মানুষের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। এর মধ্যে নারীদের সংখ্যাই বেশি।

[৩] বেলা ১১টায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম বাগিচাগাঁও এলাকার কুমিল্লা মিশন স্কুল টিকাকেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, সুশৃঙ্খল পরিবেশ। বিদ্যালয়ের প্রবেশপথের বাইরে ছাতার নিচে নাম নিবন্ধন করা হচ্ছে। এরপর বিদ্যালয়ের ফটকের শুরুতেই রেজিস্ট্রি খাতায় নাম তোলা হয়। এরপর নারী–পুরুষের বসার জন্য আলাদাভাবে চেয়ার পেতে রাখা আছে। সেখানে নাম খাতায় তোলার পর টিকা দিতে আসা ব্যক্তিরা বসছেন। এরপর হ্যান্ড মাইকে নাম ধরে একেক জনকে ডাকা হচ্ছে। টিকাকেন্দ্রে ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সীদের উপস্থিতি বেশি। সেখানে ব্যাজ ধারণ করে এলাকার অন্তত ২৫ জন যুবক কাজ করছেন। পুরোকেন্দ্রে নারীদের উপস্থিতি বেশি। বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে বিশ্রামের ব্যবস্থা রয়েছে।

[৪] বেলা সোয়া ১১টার দিকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. মনিরুল হক ওই টিকাদানকেন্দ্র পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে টিকা দেওয়া হচ্ছে।

[৫] ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জমির উদ্দিন খান বলেন,পুরুষদের বেশির ভাগই কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালে টিকা দিয়েছেন আগেই। এই কারণে এই কেন্দ্রে নারীদের উপস্থিতি বেশি। ৬০০–এর বেশি লোককে এক দিনে টিকা দেওয়ার সুযোগ নেই। যদি কারও টিকা দেওয়ার পর খারাপ লাগে, আমরা তাঁদের জন্য টেলিমেডিসিন সেবা নিশ্চিত করেছি।’

[৬] দুপুর ১২টায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে, মাইকিং করে নাম ডাকা হচ্ছে টিকা নিতে। ৭ নম্বর ওয়ার্ডের অশোকতলা এলাকায় কাউন্সিলর অফিসে নারীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। বেলা ১টায় কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ভবনের নিচে নারীদের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে। প্রখর রোদে টিকা নিতে নারীদের জটলা। একই অবস্থা পুরুষদের বুথেও।

[৭] এদিকে ইউনিয়ন পর্যায়ে কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদ কেন্দ্রে সকাল নয়টায় গিয়ে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ নিজেই মাইক হাতে নিয়ে টিকা নিতে আসা ব্যক্তিদের সারিতে দাঁড়ানোর অনুরোধ করছেন। এরপর কুমিল্লা-৬ (আদর্শ সদর, সিটি করপোরেশন ও সেনানিবাস এলাকা) আসনের সাংসদ আ ক ম বাহাউদ্দিন ওই টিকাকেন্দ্র পরিদর্শন করেন। একই সঙ্গে ওই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

[৮] এদিকে লাকসাম পৌরসভার লাকসাম রেলওয়ে হাইস্কুল ও নরপাটি বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় টিকাকেন্দ্র টিকা দিতে না পেরে অনেকে ফেরত গেছেন। বেলা একটায় নরপাটি বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে স্বাস্থ্যকর্মী তাহমিনা বেগম বলেন, টিকার জন্য মানুষ এসে ফেরত গেছেন। এই কেন্দ্রে নির্ধারিত ৬০০ টিকার বাইরে আর কোনো টিকা ছিল না।
জেলা সিভিল সার্জন ও করোনা প্রতিরোধ কমিটির সদস্যসচিব মীর মোবারক হোসাইন বলেন, ‘সরকারি নির্দেশনা মেনে টিকা দেওয়া হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর অবস্থার তথ্য আমার কাছে আসেনি।’

[৯] জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলার ২৪৫টি কেন্দ্রে ৬০০টি করে ১ লাখ ৪৭ হাজার টিকা দেওয়া হয়। অন্য ১০টি কেন্দ্রে আরও আনুমানিক ৩০ হাজার টিকা দেওয়া হয়। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকায় আগামীকাল রোববার ও সোমবার পর্যন্ত টিকা দেওয়া অব্যাহত থাকবে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত