প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ফরিদপুরে ১৫ মাসে ৬৪৮ চিকিৎসক-নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

সনতচক্রবর্ত্তী: [২] গত বছরের ১৮ এপ্রিল থেকে চলতি বছরের ২৭ জুলাই পর্যন্ত ফরিদপুরে ৬৪৮ জন চিকিৎসক-নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

[৩] খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জেনারেল হাসপাতাল ও জেলা সিভিল সার্জনের আওতাধীন ৯ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গত ১৫ মাসে ৬৪৮ জন চিকিৎসক, স্বাস্থ্য সহকারী, নার্স ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে তারা আক্রান্ত হন বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে চিকিৎসক ৫৯ জন, নার্স ও ওয়ার্ড বয় ১৬২ জন। এছাড়া স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত বিভিন্ন পর্যায়ের ৪২৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন।

[৪] ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (করোনা ডেডিকেটেড) পরিচালক ডা. সাইফুর রহমান জানান, করোনা শুরু থেকে এ পর্যন্ত কোভিড রোগীদের সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, স্বাস্থ্য সহকারী, নার্স-ওয়ার্ড বয়, অ্যাম্বুলেন্সচালক, পরিচ্ছন্নতাকর্মীসহ অন্যান্য মিলে মোট ৩৫০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে চিকিৎসক রয়েছেন ২৬ জন। আর নার্স-ওয়ার্ড বয় রয়েছেন ১১৩ জন।

[৫] তিনি আরও বলেন, হাসপাতালটিতে শুধু বৃহত্তর ফরিদপুর নয়, পার্শ্ববর্তী কুষ্টিয়া, ঝিনাইদহ, চুয়াডাঙ্গা, মাগুরা থেকে আসা করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। করোনার এ দুর্যোগের সময় স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত প্রত্যেক কর্মীই নিজের ঝুঁকি নিয়ে সেবা করে যাচ্ছেন। আমরা চেষ্টা করছি সব রোগীকে সমানভাবে সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার।

[৬] বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) ফরিদপুর শাখার সভাপতি ডা. আ স ম জাহাঙ্গীর চৌধুরী টিটো বলেন, শুধু সরকারি হাসপাতাল নয়, বেসরকারি হাসপাতালগুলোর স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত অনেকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ফরিদপুর ডায়াবেটিক সমিতি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ পর্যন্ত ২৪০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

[৭] এ বিষয়ে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজের আইসিইউ’র প্রধান ডা. অনন্ত কুমার বিশ্বাস জানান, এই ওয়ার্ডে অধিক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করা হয়। কারণ করোনা আক্রান্ত সব থেকে খারাপ রোগীদের সেবা দেয়া হয় এখানে। এখানকার প্রত্যেক স্বাস্থ্যকর্মী সব সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে থাকেন। এ প্রসঙ্গে ফরিদপুর জেলা সিভিল সার্জন ডা. ছিদ্দীকুর রহমান জানান, জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালসহ ৯ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২৯৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

[৮] তিনি বলেন, আক্রান্তদের মধ্যে আমিসহ চিকিৎসক রয়েছেন ৩৩ জন, নার্স-ওয়ার্ড বয় রয়েছে ৪৯ জন, এছাড়া অন্যান্য বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন। তিনি আরও বলেন, করোনার মহামারির শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ১০২ জন। সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৩৩৭ জন। আর মৃত্যু হয়েছে ৩৬২ জনের।

সর্বাধিক পঠিত