প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এফডিসির বাইরে চিত্রকর্মীদের জন্য কোরবানি হয়েছে ১৪টি গরু

ইমরুল শাহেদ: অন্যান্য বারের মতো এবারও এফডিসিতে কোরবানি করার সকল প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞা থাকায় সেটা সম্ভব হয়নি। চিত্রকর্মীদের জন্য পরী মনি ছয়টি গরু এবং শিল্পী সমিতি থেকে দুটি গরু কোরবানি দেওয়া হয়েছে।

জানা গেছে, পরী মনির গরুগুলো বাইরে অর্থাৎ এফডিসি সংলগ্ন একটি স্থানে কোরবানি দিয়ে চিত্রকর্মীদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। বিতরণের সময় পরী মনিও উপস্থিত ছিলেন। তিনি আগেই বলেছিলেন, ‘কোরবানি যেখানেই হোক, মাংস এফডিসির গেইটে আসবে।’ সেটাই হয়েছে। শিল্পী সমিতির গরু দুটিও প্রিয়াংকা শুটিং স্পটের কাছে কোরবানি দিয়ে শিল্পীদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

পলাশ খান নামে একজন অভিনেতাকে ঈদের দিন সন্ধ্যার কিছু আগে দেখা গেল এফডিসির গেইটে। তিনি সেখানে কিছু একটার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। জানালেন শিল্পী সমিতি থেকে ফোন দিয়ে তাকে প্রথমে কাকরাইলে থাকতে বলা হয়, পরে তাকে ডেকে আনা হয় এফডিসির গেইটে। সেখানেই তাকে কোরবানির মাংস সরবরাহ করা হয়। এফডিসির অভ্যন্তরে কোরবানি হলে যে ধরনের শৃংখলা হতো, বাইরে কোরবানি হওয়ায় তার চাইতে অনেক বেশি শৃংখলা হয়েছে। এছাড়া শাপলা মিডিয়ার প্রতিশ্রুত ছয়টি গরু কোরবানি দেওয়া হয়েছে কাকরাইলে। সে মাংস বিতরণ করা হয়েছে পরিচালক ও শিল্পীদের মধ্যে।

পরিচালক সমিতির মহাসচিব শাহীন সুমন জানিয়েছেন, প্রয়াত ২৪ জন পরিচালকের নামে এই কোরবানি দেওয়া হয়। অর্থাৎ প্রয়াত ২৪ জন পরিচালককে উৎসর্গ করা হয়েছে। ঈদুল আযহার আগে থেকেই বুঝা যাচ্ছিল এবার ঈদে ১৪টি গরু কোরবানি হবে এবং সেটাই হয়েছে। আশা করা হচ্ছিল, এফডিসিতে আরো বেশি গরু কোরবানি হবে। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এফডিসি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় অন্যরা নিরব হয়ে যান।

সর্বাধিক পঠিত