প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশ ভালো প্রতিবেশী এবং ভালো বন্ধু: চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং আই

কূটনৈতিক প্রতিবেদক: [২] তাসখন্দ শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ও চীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পারস্পরিক সম্মান প্রদর্শন, বন্ধুত্বপূর্ণ সহযোগিতা জোরদার করা এবং বেল্ট অ্যান্ড রোড সহযোগিতাকে এগিয়ে নিতে উভয় দেশই একে অপরকে সমতুল্য ।

[৩] বাংলাদেশের উন্নয়ন, সহযোগিতা ও কৗশলগত অংশীদারিত্বের গতি বজায় রাখতে বাংলাদেশের সঙ্গে চীন কাজ করতে ইচ্ছুক জানিয়ে ওয়াং আই বলেন, চীন দক্ষিণ এশিয়া এবং বাংলাদেশের দারিদ্র্য বিমোচনে সহায়তার দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।

[৪] উভয় দেশকে যৌথভাবে কোভিড-১৯ উৎসের ট্রেসিংয়ের রাজনীতির বিরোধিতা করতে হবে উল্লেখ করে বলেন, মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চাহিদা অনুযায়ী বাংলাদেশকে ভ্যাকসিন সরবরাহ অব্যাহত রাখবে চীন।

[৫] বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, বাংলাদেশ সব সময় এক-চীন নীতির উপর জোর দেয় এবং চীনের অভ্যন্তরীণ বিষয়াদি, যেমন জিনজিয়াং, হংকং এবং তিব্বত সম্পর্কিত বিষয়গুলিতে চীনকে দৃঢ় ভাবে সমর্থন করে।

[৬] ভ্যাকসিন সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, করোনা ভাইরাস উৎসের অনুসন্ধানকে রাজনৈতিক ইস্যুতে পরিণত করার বিরোধিতা করে বাংলাদেশ।

[৭] বাংলাদেশ, চীন, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, নেপাল এবং শ্রীলঙ্কায় মহামারী সহযোগিতা বাড়াতে দেশটিকে উদ্যোগী হওয়ার আহবান জানিয়ে রোহিঙ্গা ইস্যুতে দেশটির সহযোগিতা চান ড. মোমেন।

[৮] বৈঠকে চীনের কম্যুনিস্ট পার্টির শততম বার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বার্তা দেয়ায় ওয়াং আই ধন্যবাদ জানান।

সর্বাধিক পঠিত