প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তালেবানদের সন্ত্রাস থেকে মূল স্রোতে ফিরতে বলল ভারত ও চীন

রাশিদুল ইসলাম : [২] চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেছেন সুষ্ঠু শাসনব্যবস্থা ফিরে না এলে আফগানিস্তানের মত দেশের সাংহাই সহযোগিতা সংস্থায় যোগদানের সুযোগ খুব কম। তিনি আফগানিস্তানে স্থিতিশীল ব্যবস্থা ও কার্যকর রাষ্ট্রনীতির ওপর গুরুত্ব দিয়ে বলেন দেশটি ও জাতির দায়িত্ব সম্পর্কে তালেবানদের উপলব্ধি করা উচিত। দেশটির মানুষের জন্যে তালেবানদের মূল রাজনীতির ধারায় ফিরে আসা প্রয়োজন। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট

[৩] তাজাকিস্তানের রাজধানী দুশাম্বেতে সাংহাই কোঅপারেশনের অর্গানাইজেশনের বৈঠকে যোগ দিয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেন আফগানিস্তানের ভবিষ্যত দেশটির অতীতের মত হতে পারে না। বিশ্ব সহিংসতা ও জোর করে ক্ষমতা দখলের বিরুদ্ধে এবং আফগানিস্তানের সংকট সমাধানে আন্তরিকভাবে শান্তি আলোচনাই একমাত্র উপায়।

[৪] চীনের সঙ্গে আফগানিস্তানের ৮৪৩ মাইল সীমান্ত রয়েছে এবং ওই সীমান্ত এলাকা তালেবানদের দখলে চলে গেলেও সেখানে ২০ হাজার চীনা রিজার্ভ সেনা মোতায়েন আছে। একই এলাকা থেকে সহস্রাধিক আফগান সেনা পালিয়ে তাজাকিস্তানে চলে গিয়েছে।

[৫] গ্লোবাল টাইমসকে চীনে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূত জাভিদ আহমাদ কায়েম বলেছেন তিনি আশা করছে তার দেশে স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় পাকিস্তান ও চীন সহায়তা করবে।

[৬] এদিকে আফগানিস্তান মার্কিন সেনাদের একটি দলকে প্রথমে এডেন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেওয়ার পর তাদেরকে দেশটির উত্তর প্রদেশ লাহিজে আল-আনাদ বিমানঘাঁটিতে মোতায়েন করা হয়েছে।

[৭] অন্যদিকে আফগান সীমান্তে মোতায়েন সামরিক ইউনিটগুলো পরিদর্শন করেছেন ইরানের সেনাবাহিনীর প্রধান সাইয়্যেদ আব্দুর রহিম মুসাভি। তিনি বলেছেন, আফগানিস্তানে চলমান গৃহযুদ্ধ ইরানের জন্য কোনো ধরণের হুমকি সৃষ্টি করতে পারবে না।

সর্বাধিক পঠিত