প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জর্ডানে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে রাজপরিবারের সদস্যসহ সাবেক কর্মকর্তার ১৫ বছরের কারাদণ্ড

লিহান লিমা: [২] রাজতন্ত্রকে অস্থিতিশীল করে তোলার অভিযোগে জর্ডানের আদালত রয়্যাল কোর্টের সাবেক প্রধান, সাবেক অর্থমন্ত্রী ও বাদশা আবদুল্লাহের সাবেক পরামর্শক বাসেম আওয়াদাল্লাহ ও রাজপরিবারের সদস্য শরিফ হাসান বিন জায়িদকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়। বাসেমের সৌদি ও মার্কিন নাগরিকত্ব রয়েছে। আল জাজিরা

[৩] সোমবার জর্ডানের সামরিক ট্রাইব্যুনালের একটি আদালত ২১ জুন থেকে চলমান এই বিচারের রায়ে জানায়, তারা জর্ডানের রাজসিংহাসনের সাবেক উত্তরসূরী ও বাদশাহ আব্দুল্লাহর সৎ ভাই প্রিন্স হামজাকে সিংহাসনে বসানোর ষড়যন্ত্র করেছিলেন। আদালত এই দুজনকে ‘শাসনব্যবস্থার বিরুদ্ধে উস্কানি দাতা’ ও ‘রাষ্ট্রদ্রোহী’ বলে দোষী সাব্যস্ত করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে বৈদেশিক আঁতাতেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।

[৪] প্রিন্স হামজা জর্ডানে ব্যাপক জনপ্রিয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই বর্তমান প্রশাসনের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার সমালোচনা করে আসছেন। ২০০৪ সালে বাদশা আবদুল্লাহ তার যুবরাজ পদ কেড়ে নিয়ে তা নিজের ছেলেকে প্রদান করেন।

[৫] এপ্রিলে জর্ডান একটি অভ্যূত্থান চেষ্টা নস্যাৎ করে দেয়ার কথা জানায় যা সারা বিশ্বকে অবাক করে। প্রিন্স হামজাকে গৃহবন্দি করে তার বিরুদ্ধে জাতীয় নিরাপত্তা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়। তবে তাকে বিচারের সম্মুখীন করা হয় নি।

[৬] সাজা পাওয়া দুই কর্মকর্তারই সৌদিআরবের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকায় এ ঘটনার পেছনে সৌদি আরবের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে সৌদিআরব এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত