প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] প্রতি মিনিটে বিশ্বে ক্ষুধায় প্রাণ হারাচ্ছেন ১১ জন: অক্সফাম

লিহান লিমা: [২] অধিকার গ্রুপ অক্সফাম জানিয়েছে, ২০২০ সালের তুলনায় চলতি বছরে বিশ্বজুড়ে খাদ্যাভাব ও ক্ষুধা তীব্রভাবে বেড়েছে। ২০১৯ সালের চেয়ে ৬গুণ বেশি মানুষ ‘দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতি’তে বাস করছে। এনডিটিভি

[৩]সংঘর্ষ ও জলবায়ু পরিবর্তনের মতো সংকটে পতিত মানুষের দুর্দশাকে আরো বাড়িয়ে তুলেছে করোনা মহামারী। বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, মহামারী শুরুর পর থেকে বিশ্বের ঝুঁকিপূর্ণ সম্প্রদায়গুলি বলেছিলো ভাইরাস আমাদের প্রাণ নেয়ার আগে আমরা ক্ষুধায়ই মরে যাবে। আজ ক্ষুধায় মৃত্যু ভাইরাসকে ছাপিয়ে যাচ্ছে।

[৪]অক্সফামের সমীক্ষায় উঠে এসেছে, কোভিডে প্রতি এক মিনিটে ৭জনের তুলনায় প্রতি মিনিটে ক্ষুধায় মারা যাচ্ছেন ১১জন। ইয়েমেন, মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র, আফগানিস্তান, দক্ষিণ সুদান, ভেনেজুয়েলা ও সিরিয়ার মতো দেশগুলো, যেখানে ইতোমধ্যেই খাদ্য সংকট বিরাজ করছে মহামারী ও এর ফলে সৃষ্ট অর্থনীতিক বিপর্যয়ে তাদের অবস্থা আরো শোচনীয় হয়ে পড়েছে।

[৫]অক্সফাম জানায়, ব্যাপক বেকারত্ব এবং খাদ্য উৎপাদন মারাত্মকভাবে ব্যহত হওয়ায় বিশ্বব্যাপী খাদ্যের দাম ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে খাদ্যমূল্য বৃদ্ধির সবচেয়ে বড় হার।

[৬]সামগ্রীকভাবে বিশ্বজুড়ে ৫ লাখের বেশি মানুষ ‘দুর্ভিক্ষের মতো পরিস্থিতিতে’ বসবাস করছেন এবং ১৫ কোটি ৫০ লাখ মানুষ ‘চরম ক্ষুধার্ত’ অবস্থায় বসবাস করছেন। যা গত বছরের চেয়ে ২ কোটি বেশি। এই সাড়ে ১৫ কোটি মানুষের তিন জনের মধ্যে দু’জন চলমান যুদ্ধ ও সংঘর্ষপূর্ণ দেশে বসবাস করছেন। অক্সফাম বলেছে, গত তিন বছর ধরে বিশ্বজুড়ে ক্ষুধার অন্যতম বড় কারণ হিসেবে রয়ে গিয়েছে যুদ্ধ ও সংঘর্ষ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত